বালিশ কেনার বিষয়ে তদন্ত করবে আইএমইডি: পরিকল্পনামন্ত্রী


নিউজ ডেস্ক
সত্যবাণী

ঢাকাঃ রূপপুর প্রকল্পে তিন টাকার বালিশ তুলতে পাঁচ টাকা লাগার কারণ অনুসন্ধানে আইএমডির টিম যাবে বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।এ ঘটনার তদন্ত রিপোর্ট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অবগত করার পরই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া যাবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।মঙ্গলবার (২১ মে) সকাল ১০টায় রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত একনেক সভা শেষে এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা জানান পরিকল্পনামন্ত্রী।তিনি বলেন,রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের গ্রিন টিসি হাউজিং প্রকল্পের বিষয়টি নজরে এসেছে।এটা দেখে আমি এক্সসাইটেড।প্রকল্পে তিন টাকার বালিশ তুলতে পাঁচ টাকা লাগলো কেন? বিষয়টি তদন্ত করতে রূপপুরে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের বাস্তবায়ন,পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগ (আইএমইডি) টিম পাঠানো হবে।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন,রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের কেনাকাটা নিয়ে দুটি তদন্ত চলছে।একটি পাবলিক ওয়ার্কস ডিপার্টমেন্ট (পিডাব্লিউডি) অন্যটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের।আমরাও আইএমইডিকে দিয়ে তদন্ত করাবো।রূপপুরে টিম যাবে। এই টিম কি তথ্য দেয় তা প্রধানমন্ত্রীকে অবগত করা হবে।এর পরেই আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পারবো।তিনি আরও বলেন,উন্নয়ন থেমে থাকবে না।দেশের উন্নয়ন চলবে।আমাদের দেশের সব উন্নয়ন ধরে রাখবো।অন্যান্য মন্ত্রণালয় বাড়তি বরাদ্দ চেয়েছে কি এমন? প্রশ্নের জবাবে এম এ মান্নান বলেন,অন্য কোনো মন্ত্রণালয় বাড়তি বরাদ্দ চাইলে টাকার কোনো সমস্যা নেই।কোনো মন্ত্রণালয় বাড়তি চাহিদার কথা আমাদের বোঝাতে পারলে বাড়তি বরাদ্দ দেওয়া হবে।মন্ত্রী আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমাদের গবেষণা ও পাটে বিশেষ নজর দিতে বলেছেন।আমরা এই দুটি বিষয়ের উন্নয়নে কাজ করবো।কিছু কিছু প্রকল্প বাস্তবায়নে ধীরগতি দেখা দিয়েছে।প্রকল্প বাস্তবায়নে ধীরগতির কারণ খুঁজতে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.