মক্কা সম্মেলনে যোগ দিতে সৌদি আরবে শেখ হাসিনা


নিউজ ডেস্ক
সত্যবাণী

সৌদি আরবঃ তিন দেশ সফরে থাকা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার চার দিনের জাপান ভ্রমণ শেষ করে শুক্রবার বিকালে দ্বিতীয় গন্তব্য সৌদি আরব পৌঁছেছেন। প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীদের বহনকারী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি বিশেষ ফ্লাইট স্থানীয় সময় বিকাল ৫টা ১০ মিনিটে জেদ্দার বাদশা আবদুল আজিজ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে।সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মসিহ বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানান। পরে প্রধানমন্ত্রী তার আবাস মক্কা প্যালেসের উদ্দেশে যাত্রা করেন।এর আগে প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী ফ্লাইটটি স্থানীয় সময় সকাল ৯টা ৪৫ মিনিটে টোকিওর হানেদা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করে। এ সময় জাপানের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তোশিকো আবে প্রধানমন্ত্রীকে বিদায় জানান।তিন দিনের সৌদি আরব সফরকালে প্রধানমন্ত্রী শনিবার মক্কায় ওআইসির ১৪তম ইসলামিক সম্মেলনে যোগদানের পাশাপাশি পবিত্র ওমরা পালন এবং রবিবার হযরত মুহাম্মাদ (স.) এর রওজা মুবারক জিয়ারত করবেন।

শেখ হাসিনা ৩ জুন ফিনল্যান্ডের উদ্দেশে সৌদি আরব ত্যাগ করবেন এবং সেখানে ৭ জুন পর্যন্ত থাকবেন। ফিনল্যান্ড সফরকালে ৪ জুন দেশটির প্রেসিডেন্ট সলি নিনিস্তোর সাথে সাক্ষাৎ করবেন শেখ হাসিনা।সৌদি আরব মক্কায় ওআইসির ১৪তম ইসলামিক সম্মেলনের আয়োজন করছে।এবারের সম্মেলনের শিরোনাম দেয়া হয়েছে ‘মক্কা সামিট: টুগেদার ফর দ্য ফিউচার’।প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুক্রবার সন্ধ্যায় ওআইসি সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন।সেই সাথে তিনি শনিবার সম্মেলনের একাধিক অধিবেশনে অংশ নেবেন।সন্ধ্যায় ওমরাহ পালন করবেন প্রধানমন্ত্রী।

পরের দিন রোববার সকালে বিমানযোগে মদিনার উদ্দেশে যাত্রা করবেন প্রধানমন্ত্রী এবং সেখানে হযরত মুহাম্মাদ (স.) এর রওজা মুবারকে ফাতেহা পাঠ করে জেদ্দায় ফিরে আসবেন তিনি।সোমবার তিনি হেলসিংকির উদ্দেশে জেদ্দা ত্যাগ করবেন।তিনি জার্মানির ফ্রাঙ্কফুট হয়ে স্থানীয় সময় বেলা ১টায় ফিনল্যান্ডে পৌঁছাবেন।‘দ্য ফিউচার অব এশিয়া’ শীর্ষক নিক্কাই আন্তর্জাতিক সম্মেলনে অংশ নিতে গত ৩৮ মে জাপানের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।জাপান সফরকালে বুধবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক শেষে দুই দেশ ২৫০ কোটি মার্কিন ডলারের ৪০তম ওডিএ চুক্তি স্বাক্ষর করে।এছাড়া,তিনি নাগরিক সংবর্ধনা এবং জাপানের ব্যবসায়ী নেতাদের সাথে প্রাতরাশ ও আলোচনায় অংশ নেন।সেই সাথে ঢাকার হলি আর্টিজান হামলায় নিহত জাপানিদের পরিবারের সদস্য এবং জাইকা প্রেসিডেন্ট শিনিচি কিতাওকা পৃথকভাবে তার সাথে সাক্ষাৎ করেন।১২ দিনব্যাপী তিন দেশ সফর শেষে ৮ জুন প্রধানমন্ত্রীর দেশে ফেরার কথা রয়েছে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.