ইস্ট এন্ডের আন্দোলন সংগ্রামের বিশেষ প্রদশর্নী শুরু হয়েছে টাওয়ার হ্যামলেটস হিস্ট্রি লাইব্রেরীতে


Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

নিউজ ডেস্ক
সত্যবাণী

টাওয়ার হ্যামলেট্‌সঃ ১৯৭০ থেকে ২০০০ সাল এই তিন দশকে ইস্ট এন্ড হিসেবে পরিচিত পূর্ব লন্ডনে বর্ণবাদ,ফ্যাসিবাদ বিরোধী আন্দোলন,ভোট ও শ্রম অধিকার আদায়ে লড়াইয়ের দীর্ঘ ইতিহাসের নানা উপাদানের বিশেষ এক প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে টাওয়ার হ্যামলেটস লকাল হিস্ট্রি লাইব্রেরী এন্ড আর্কাইভস।ষ্ক্রষ্ক্রইউনাইট এন্ড রেজিস্ট! প্রটেস্ট ইন দ্যা ইস্ট এন্ড ১৯৭০Ð২০০০ম্বম্ব শিরোনামের এই প্রদর্শনীতে বিংশ শতাব্দীর গুরুত্বপূর্ণ কয়েক দশকে পূর্ব লন্ডনে সংঘটিত আন্দোলন সংগ্রাম ও প্রতিবাদের নানা উপকরণ যেমন ব্যানার, ব্যাজ, পোষাক, পোস্টার, আলোকচিত্র, লিফলেট, প্রচারপত্র সহ বিভিন্ন ধরনের সামগ্রী প্রদর্শিত হবে। কয়েক মাস ব্যাপি চলা এই প্রদর্শনীর পাশাপাশি থাকবে বিভিন্ন বিষয়ভিত্তিক আলোচনা ও উপস্থাপনা।

এ প্রসঙ্গে টাওয়ার হ্যামলেটসের মেয়র জন বিগস বলেন,আমাদের এই ইস্ট এন্ডে সব ধরনের ঘৃণা ও অসহিষ্ণুতার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবার দীর্ঘ ও গৌরবোজ্জল ইতিহাস রয়েছে।এই প্রদর্শনী সেই দিনগুলোর কথাই আমাদের মনে করিয়ে দেবে।টাওয়ার হ্যামলেটসে যে ষ্ক্রঘৃণার কোন স্থান নেইম্ব তা নিশ্চিত রাখতে কাউন্সিল হিসেবে আমরা আমাদের প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখে যাবো।যে তিন দশকের আন্দোলন সংগ্রামের ইতিহাস তুলে ধরা হবে এই প্রদর্শনীতে, সেই দশকগুলো টাওয়ার হ্যামলেটসের রাজনীতি,অর্থনীতি এবং সামাজিক উত্থানের, পরিবর্তনের ইতিহাসের অনন্য অধ্যায় হিসেবে চি?ত হয়ে রয়েছে।এই সময়কালে এখান থেকে যেমন কিছু কিছু কমিউনিটির স্থানান্তর ঘটেছে, তেমনি নতুন কমিউনিটিও বসত গড়েছে এখানে নতুন করে।একসময়ের পরিত্যক্ত,অসুন্দর ভবনগুলো ভেঙ্গে গড়ে উঠেছে দৃষ্টি নন্দন নতুন ভবন।পরিবর্তনের এই ধারায় অনেক লড়াই সংগ্রামের সাক্ষি হয়ে আছে এই জনপদ।ফ্যাসিজমের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষের লড়াইয়ের অনন্য গাঁথা ইতিহাসে আজ ব্যাটল অব ক্যাবল স্ট্রিট হিসেবে জায়গা করে নিয়েছে।ভোটাধিকার আন্দোলনেরও সূতিকাগার ছিলো এই জনপদ।এই এক্সিবিশনে স্থানীয় আন্দোলন,সংগ্রাম কিভাবে সারা যুক্তরাজ্য জুড়ে সামাজিক আন্দোলনে প্রভাব বিস্তার করেছিলো,তাÐও তুলে ধরা হবে।কেবিনেট মোর ফর কালচার,আর্টস এন্ড ব্রেক্সিট,কাউন্সিলর সাবিনা আখতার বলেন,কিভাবে সকল কমিউনিটি একত্রিত হয়ে পরিবর্তনের জন্য লড়াই করেছে, তা তুলে ধরা হচ্চেছ এই প্রদর্শনীতে,যা থেকে আমাদের সবার অনেক কিছুই শেখার আছে।এই প্রদর্শনীটি দেখার জন্য আমি বারার বাসিন্দাদের প্রতি আহধ্বান জানাচ্চিছ।www.ideastore.co.uk/local-history-whats-on এই ওয়েবাইটে গিয়ে প্রদর্শনী সম্পর্কে আরো তথ্য জানা যাবে।

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.