টাওয়ার হ্যামলেটসে পরিচ্চছন্ন অভিযান “বিগ ক্লিন আপ” এর অষ্টম পর্ব চলছে


নিউজ ডেস্ক
সত্যবাণী

টাওয়ার হ্যামলেট্‌সঃ বারাব্যাপি পরিচ্চছন্ন অভিযানের অষ্টম পর্ব “বিগ ক্লিন আপ ৮”এর অংশ হিসেবে টাওয়ার হ্যামলেটসের বাসিন্দা ও ব্যবসা বাণিজ্যের সাথে সংশ্লিষ্টরা এবার হোয়াইটচ্যাপল,ভিক্টোরিয়া পার্ক,পপলার ও বেথনাল গ্রীণ এলাকায় পরিচ্ছন্ন অভিযান চালাবেন।চলতি সেপ্টেম্বর মাসের পুরোটাই পরিচ্ছন্ন অভিযানের পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের পরিবেশ সচেতনতামূলক অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করা হবে।বিগ ক্লিন আপ এর অংশ হিসেবে আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর রয়েল লন্ডন হসপিটালের জন হ্যারিসন গার্ডেনে পরিচ্ছন্ন অভিযানে অংশ নেবেন গুড জিম ও বার্টস হেলথ এনএইচএস এর স্বেচ্ছাসেবীরা।এছাড়া ২৩ থেকে ২৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পালন করা হবে রিসাইকল সপ্তাহ।এ উপলক্ষে কাউন্সিল ২৫ সেপ্টেম্বর কমিউনিটি গ্রুপগুলোকে সাথে নিয়ে রোমান রোড ও সানি জার ইকো হাব এ প্লাস্টিক ফ্রি ইভেন্ট পরিচালনা করবে।এতে কুইন মেরি ইউনিভার্সিটির ভুগোল বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীরা অংশ নেবেন।২৭ সেপ্টেম্বর পপলারে ক্রিসপ স্ট্রিট মার্কেটে পরিচ্ছন্ন অভিযান চালানো হবে।গত সপ্তাহে স্থানির বাসিন্দারা ওয়াপিং এবং রেক্টরি গার্ডেনে পরিচ্ছন্ন কার্যক্রমে অংশ নেন।

এ প্রসঙ্গে মেয়র জন বিগস বলেন,স্থানিয় বাসিন্দা ও আমাদের অংশিদারদের সম্পৃক্ত করার এক অসাধারণ উদ্যোগ হচ্ছে এই বিগ ক্লিন আপ ইভেন্ট।পরিচ্ছন্ন পরিবেশ নিশ্চিত করার পাশাপাশি নিজের এলাকা নিয়ে গর্ব করার চেতনা ছড়িয়ে দিতে আমরা সহযোগিতা করছি।তিনি বলেন,চলতি বছরের শুরুর দিকে আমরা আবর্জনা সংগ্রহ ও রিসাইকেলর জন্য অত্যন্ত উচ্চচাভিলাষি ওয়্যেস্ট স্ট্র্যাটেজি বা নীতিমালা গ্রহণ করেছি। এর একটি অন্যতম লক্ষ্য হচ্ছে জনসাধারণ যাতে তাদের এলাকাকে ভালোবাসেন, সেজন্য তাদেরকে উদ্বুদ্ধ করা এবং এই কাজে বিগ ক্লিন আপ নামের পরিচ্ছন্ন অভিযান হচ্ছে গুরুত্বপূর্ণ একটি উদ্যোগ।২০১৭ সালের শেষ দিকে ‘লাভ ইওর নেইবারহুড’ শীর্ষক এক প্রচারাভিযানের অংশ হিসেবে প্রথম বিগ ক্লিন আপ কার্যক্রম হাতে নেওয়া হয়েছিলো। সেই থেকে এখন পর্যন্ত ৭০টি পরিচ্ছন্ন অভিযানে ৬৫০ জনের মতো স্বেচ্চছাসেবিকে এই কাজে আমরা স্বাগত জানিয়েছি।গত এপ্রিল মাসে সর্বশেষ পরিচ্ছন্ন কার্যক্রমে টাওয়ার হ্যামলেটসের বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রায় ১০০ ব্যাগ আবর্জনা ও পুনঃব্যবহার উপযোগী পরিত্যক্ত সামগ্রি সংগ্রহ করা হয়েছিলো।

পরিবেশ বিষয়ক কেবিনেট মেম্বার,কাউন্সিলর ডেভিড এডগার বলেন,যেখানে সেখানে আর্বজনা ফেলা গ্রহণযোগ্য নয়।স্থানিয় বাসিন্দা ও ব্যবসায়িরা তাদের নিজ নিজ এলকাকে পরিচ্ছন্ন করতে একত্রিত হয়ে কাজ করার জন্য আমি আহবান জানাচ্ছি।তিনি বলেন,আমাদের আবর্জনা অপসারণ কর্মীরা সারা বছরই কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।কিন্তু তাদের সম্পদ ও সামর্থ্যের ক্ষেত্রেও সীমাবদ্ধতা রয়েছে।আমরা ভাগ্যবান যে,টাওয়ার হ্যামলেটসে চমৎকার কিছু কমিউনিটি গ্রুপ রয়েছে,যারা সর্বদাই সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয়।বিগ ক্লিন আপ ইভেন্টে অংশ নিতে আগ্রহী বাসিন্দারা communications@towerhamlets.gov.uk এই ইমেইলে যোগযোগ করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.