মাদ্রিদে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত


কবির আল মাহমুদ
সত্যবাণী

মাদ্রিদ,স্পেন থেকেঃ শিক্ষা,শান্তি,প্রগতি’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে স্পেনে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার (৭ জানুয়ারী) দেশটির রাজধানী মাদ্রিদের একটি রেস্টুরেণ্টে স্থানীয় সময় রাত ১১টায় কেক কাটার মধ্য দিয়ে এ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত হয়।ছাত্রলীগ নেতা রাজীব অহমদের সভাপতিত্বে এবং ছাত্রলীগ নেতা কাউসার আহমদ টুটুল এর পরিচালনায় এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন স্পেন আওয়ামীলীগের সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি মোঃ জাকির হোসেন।বিশেষ অতিথির ছিলেন স্পেন আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মোঃ ফয়সাল ইসলাম, স্পেন আওয়ামীলীগের সাবেক আহবায়ক কমিটির সদস্য তামিন চৌধুরী,আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ বেলাল আহমদ, প্রবীন আওয়ামীলীগ নেতা শেখ মোহাম্মদ ইসলাম,স্পেন আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মোঃ হাসান,সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ রফিক খান।বক্তব্য দেন আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ শফিকুল ইসলাম, স্পেন যুবলীগের প্রধান আহবায়ক ইফতেখার আলম, যুবলীগ নেতা অলিউর রহমান,শিপন আহমদ রাহী, ছাত্রলীগ নেতা মোঃ শফিকুন নূর, সুব্রত রয় শুভ, শাহিন মিয়া, সাদেক আহমদ, শাওন প্রমুখ।

প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর সভায় বক্তারা বলেন, বাংলাদেশের স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সবসময় বলতেন, ‘ছাত্রলীগের ইতিহাসের সাথে বাংলাদেশের মুক্তিসংগ্রামের রক্তস্নান পথ পরিক্রমা সম্পৃক্ত। বাংলা, বাঙালি, স্বাধীনতা ও স্বাধিকার অর্জনের লক্ষে ১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফজলুল হক হলের অ্যাসেম্বলি হলে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠা করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। প্রতিষ্ঠার সময় ছিল পূর্ব পাকিস্তান ছাত্রলীগ। পরবর্তী সময়ে ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধের পর পূর্ব পাকিস্তান মুসলিম ছাত্রলীগের পরিবর্তে হয় বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোঃ জাকির হোসেন বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৬৬ সালের ৬ দফা দাবি দিয়েছিলেন,যা ছিল বাঙালি জাতির মুক্তির সনদ। এর পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশের স্বাধীনতার আন্দোলন বেগমান হয়। তৎকালীন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের সাহসী আন্দোলনে বঙ্গবন্ধুকে অনুপ্রেরণা যুগিয়েছিল। পরে আনুষ্ঠানিক ভাবে কেক কেটে ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করেন অতিথিসহ অন্যান্যরা। এসময় আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগসহ অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মীরাও উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.