বিচিত্র যাপনে ‘জীবনের গান’


ইকবাল পারভেজ
সত্যবাণী

ঢাকাঃ জীবনের গান’ লেখক তৃপ্তি সাহার প্রথম গ্রন্থ।৩৯টি প্রবন্ধ-নিবন্ধ-স্মৃতিচারণে বইটি সাজানো হয়েছে।গ্রন্থভুক্ত লেখাগুলো জীবনের বিচিত্র অনুভব ধারণ করে আছে।বইপাঠ,বঙ্গবন্ধু,স্মৃতি,মানবিক বিষয়-আশয়,প্রকৃতি ও সামাজিক অভিঘাত এই বইয়ের প্রধান উপজীব্য বিষয়।বইটির প্রথম লেখা ‘মানবতার জয়গান’।কিভাবে মানবতা ক্ষয়ে যাচ্ছে তার অনেক ঘটনার কথা লেখক উল্লেখ করেছেন।সতিদাহ প্রথা, হিন্দু-মুসলিম রায়ট,বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ, অধূনা সংগঠিত হলি আর্টিজান হত্যাকান্ড ঘটনার ভেতর দিয়ে কিভাবে মানবতা ভূ-লণ্ঠিত হয়েছে তারই বর্ণনা দেয়া হয়েছে নানা ঘটনা প্রবাহে।লেখকের প্রত্যাশা একদিন সবাই মানবিক হয়ে উঠবে কর্ম ও সাধনায়।তাহলেই পৃথিবী সুন্দর হবে।

তৃপ্তি সাহা বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধকে দেখেছেন। তার দেখা ঘটনাবলি একাধিক লেখায় উপস্থাপন করেছেন।লেখাগুলোতে মুক্তিযুদ্ধের ভয়াল দিনগুলোর কথা উঠে এসেছে।একই সাথে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে এ গ্রন্থে একাধিক প্রবন্ধ রয়েছে।আমাদের খোকা’ প্রবন্ধে বঙ্গবন্ধুর বাল্যজীবনের ঘটনাবলি তুলে ধরেছেন।বাঙালি বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ’ প্রবন্ধে বাঙালির সাথে বঙ্গবন্ধু এবং বঙ্গবন্ধুর সাথে বাংলাদেশের নিবিড় সম্পর্কের কথা বলা হয়েছে।এ দুটি প্রবন্ধই সুখপাঠ্য এবং সময় উপযোগী।

‘আমাদের ইলিশ’ প্রবন্ধে লেখক ইলিশের প্রকার ও স্বাদের ভিন্নতার কথা উল্লেখ করেছেন। ব্যক্তিগত স্মৃতিচারণা থেকে জানিয়েছেন সেকালের ইলিশের প্রাপ্যতা ছিলো সহজ ও সস্তা।অনেকভাবে ইলিশ খাওয়া হতো। পান্তা ইলিশ,পাতুরি,লবণ ইলিশ ছিলো প্রচলিত। বৈশাখি ইলিশের প্রচলন ছিলো না। সেই ইলিশের ঐশ্বর্য এখন হারিয়ে গেছে। তাই ইলিশ সংরক্ষণের জন্যে লেখক আরো কার্যকর পদক্ষেপের দাবি জানান।আলোকিত মানুষ চাই’ আলোচ্য গ্রন্থের অন্যতম প্রবন্ধ। পাঠাগার কিভাবে শিক্ষার্থীদেরকে আলোকিত করে তা এ প্রবন্ধে বিশ্লেষণ করে দেখানো হয়েছে। লেখক বলেছেন, কেবল পাঠ্যবই পড়লেই হবে না, পাশাপাশি শিল্প-সাহিত্যের গ্রন্থও পাঠ করতে হবে।ব্যক্তি আলোকিত হলেই সমাজ ও রাষ্ট্র আলোকিত হবে।

‘তোমাদের এ-কাল,আমাদের সে-কাল’ প্রবন্ধে তৃপ্তি সাহা সত্তর-আশি দশকের শিক্ষাব্যবস্থার সাথে আমাদের একালের শিক্ষাব্যবস্থার তুলনামূলক আলোচনা করেছেন।তখনকার মানুষের আচার-আচরণ,খাদ্যাভ্যাস,সহনশীল মনোভাব অনেক পরিবর্তিত হয়ে আজকে অস্বস্তিকর পরিবেশে রূপ নিয়েছে। মাদকাসক্ত,অসহিষ্ণুতা,অর্থনেশা,ক্ষমতার অপব্যবহারের মত নেতিবাচক বিষয়ের মধ্যদিয়ে আমাদেরকে যেতে হচ্ছে।যা কোনভাবেই কাম্য নয়।এর থেকে উত্তরণের প্রত্যাশা করেন লেখক। আমাদের প্রত্যাশাও তাই।জীবনের গান’ গ্রন্থটি পাঠ শেষে পাঠক উপলব্ধি করবেন আমাদের জীবনের পরতে পরতে গান লুকিয়ে আছে। সেসব গান শুনে আমরা সমৃদ্ধ হতে পারি। সুখপাঠ্য এ বইটি চলতি বইমেলায় প্রকাশ করেছে চৈতন্য প্রকাশনী। প্রচ্ছদ করেছেন চারু পিন্টু।১৭৬ পৃষ্ঠার মূল্য রাখা হয়েছে ২৮০ টাকা।পাওয়া যাবে বইমেলার ২৫০-২৫১ স্টলে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.