সাম্প্রদায়িকতা ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে লড়ে যাবে যুক্তরাজ্য নির্মূল কমিটি


নিউজ ডেস্ক
সত্যবাণী

লন্ডন: ‘১৯৯২ সালে জন্মলগ্ন থেকেই নির্মূল কমিটি একাত্তরের যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবিতে আন্দোলন করে আসছে। যুদ্ধাপরাধীদের বিচার কার্যক্রম শুরু ও শীর্ষ যুদ্ধাপরাধীদের দন্ড কার্যকরের মাধ্যমে আমাদের দীর্ঘ ২৮ বছরের আন্দোলন এখন সফলতার দ্বারপ্রান্তে। শহীদ জননী জাহানার ইমামের নেতৃত্বে গণ আদালত গঠনের মাধ্যমে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার দাবিতে যে আন্দোলনের সূচনা হয়েছিলো ব্রিটেনেও সেই আন্দোলনের বহ্নিশিখা ছড়িয়ে দিয়েছিল যুক্তরাজ্য নির্মূল কমিটি’।

গত ১১ ফেব্রুয়ারী যুক্তরাজ্য একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির ২৮তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষ্যে লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাবে অনুষ্টিত এক সভায় সংগঠনের সদস্যরা এই কথাগুলি বলেন।
তারা বলেন, ‘আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদের বিরোদ্ধে আরও শক্ত ভূমিকার দাবিতে যুক্তরাজ্য নির্মূল কমিটি নিয়মিতই লবি করে যাচ্ছে। ব্রিটেন ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশেও এইসব দাবিতে নির্মূল কমিটি ও সমমনা সংগঠনগুলোর যৌথ উদ্যোগে পালিত হচ্ছে বিভিন্ন কর্মসূচী। সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে সংখ্যালঘু সম্প্রাদায়ের উপর হামলা, আক্রমনের প্রতিবাদেও বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করেছে যুক্তরাজ্য নির্মূল কমিটি’। অনুষ্ঠানে সংগঠনের নেতারা দৃঢ়তার সাথে ঘোষণা করেন, ‘যুদ্ধপরাধীহীন বাংলাদেশ আমাদের অঙ্গিকার, মৌলবাদ, সাম্প্রদায়িকতা ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে আমাদের অবস্থান প্রতিদিন, প্রতিনিয়ত। যুক্তরাজ্য নির্মূল কমিটি সাম্প্রদায়িকতা ও কুপমন্ডুকতা বিরোধী সব আন্দোলনে দেশবাসীর সাথে আছে, ভবিষ্যতেও থাকবে।

সংগঠনের যুক্তরাজ্য শাখার সভাপতি নূরুদ্দিনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ  সম্পাদক জামাল খানের পরিচালনায় অনুষ্টানে বক্তব্য রাখেন উপদেষ্টা মুক্তিযোদ্ধা খলিল কাজী ওবিই,  কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আনসার আহমেদ উল্লাহ, সহ সভাপতি সৈয়দ আনাস পাশা, সংগঠনিক সম্পাদক রুবি হক, প্রচার সম্পাদক এনাম হক ও সুশান্ত দাস প্রশান্ত প্রমূখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.