মামলা প্রত্যাহারের আশ্বাসে অনশন ভাঙলেন জাবি শিক্ষার্থীরা


Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

সত্যবাণী ডেস্ক: ‘মামলা নিষ্পত্তিতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব আইনি প্রক্রিয়ায় চেষ্টা করা হবে’—বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের এমন আশ্বাসে অনশন ভাঙলেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে আমরণ অনশনরত শিক্ষার্থীরা।

আজ সোমবার রাত পৌনে ৮টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক আমির হোসেন অনশন ভাঙান শিক্ষার্থীদের। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক শেখ মঞ্জুরুল হক, প্রক্টর অধ্যাপক তপন কুমার সাহা, শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ফরিদ আহমদ, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ফরিদ আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে অন্য শিক্ষকদের নিয়ে অনশনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলতে যান  উপ-উপাচার্য অধ্যাপক আমির হোসেন।এ সময় শিক্ষার্থীদের মামলা নিষ্পত্তির আশ্বাস দিলে  রাত পৌনে ৮টার দিকে শিক্ষার্থীরা অনশন ভাঙেন। পরে উপস্থিত শিক্ষার্থীদের আশ্বস্ত করে বক্তব্য দেন উপ-উপাচার্য আমির হোসেন। এ সময় মামলা নিষ্পত্তির ব্যাপারে সহযোগিতা করা হবে জানিয়ে শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকও বক্তব্য দেন।গত ২৬ মে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে বাসচাপায় বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থী নিহত হলে প্রতিবাদে পরের দিন ২৭ মে মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীরা। একপর্যায়ে সড়ক অবরোধকারী শিক্ষার্থীদের ওপর লাঠিপেটা, গুলি, কাঁদানে গ্যাসের শেল নিক্ষেপ করে পুলিশ। পরে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা ক্ষিপ্ত হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাসভবনে অবস্থিত কার্যালয়ে ভাঙচুর চালায়। এ ঘটনায় আন্দোলনকারী ৫৬ শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে হত্যাচেষ্টা মামলা দায়ের করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহার, তদন্ত কমিটি পুনর্গঠন, পুলিশি হামলার বিচার, সড়ক নিরাপত্তার দাবি দ্রুত বাস্তবায়নের দাবিতে গত শনিবার দুপুর ২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে অনশনে বসেন ইংরেজি বিভাগের ৪২তম আবর্তনের শিক্ষার্থী সরদার জাহিদ। বিকেলে তাঁর সঙ্গে যোগ দেন আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষার্থী পূজা বিশ্বাস। পরে তাঁদের সঙ্গে আরো ছয় শিক্ষার্থী যোগ দেন। অনশন করতে গিয়ে তিন শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েন।

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *