ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এ্যালামনাই ইউকে:মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের বৃত্তি প্রদানের সিদ্ধান্ত (ভিডিও)


Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

নিলুফা ইয়াসমীন হাসান
বার্তা সম্পাদক, সত্যবাণী

লন্ডন: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এ্যালামনাই ইউকের বর্ণাঢ্য পুনর্মিলনী থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের বৃত্তি দেয়ার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। গ্রেটার লন্ডনের ইলফোর্ডের দ্যা উইলওস ইভেন্টস এ দিনভর আন্দঘন পরিবেশে অনুষ্ঠিত জাঁকজমকপূর্ণ এই মিলন মেলায় গৃহীত এক প্রস্তাবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অস্বচ্ছল পরিবার থেকে পড়তে আসা ৫০ জন মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীকে বৃত্তি প্রদানের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
thumbnail_20170910_214552প্রস্তাবটি গৃহীত হওয়ার পর ‘প্রিয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আমাদের অনেক কিছু দিয়েছে, এবার আমাদের ঋণ শোধের পালা‘ এই নীতির ভিত্তিতে প্রাক্তণ গ্র্যাজুয়েটরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে বৃত্তি স্পন্সর করার জন্য এগিয়ে আসেন। আমন্ত্রিত অতিথিরাও পিছিয়ে ছিলেন না। ৩০ জনের কাছ থেকে বৃত্তি দেয়ার অঙ্গীকার (কমিটমেন্ট) পাওয়া গেছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এ্যালামনাই ইউকের আহবায়ক কমিটির সচিব মারুফ চৌধুরী জানিয়েছেন যে, প্রস্তাব অনুযায়ী ৫০ জন, এমনকি আরও অধিক ছাত্র-ছাত্রীদের বৃত্তি দেয়ার ব্যাপারে তিনি আশাবাদী। তিনি বলেন, পরবর্তীকালে এজিএম এ নির্বাচিত কমিটি বৃত্তি প্রদানের প্রক্রিয়াসহ আরও কিভাবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে সহায়তা দেয়া যায়, সেসব ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে।
IMG_5853গত বছরের ডিসেম্বর মাসে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এ্যালামনাই ইউকের যাত্রা শুরু হয়। এরপর গত ৫ জানুযারী যুক্তরাজ্যে বসবাসরত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দেড়শ‘ সাবেক গ্র্যাজুয়েটের উপস্থিতিতে গঠিত হয আহবায়ক কমিটি।
দ্যা উইলোজের বিশাল উন্মুক্ত চত্তরে বাংলাদেশের এবং ব্রিটেনের জাতীয় পতাকা উত্তোলন এবং দুই দেশের জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মাধ্যমে রিইউনিয়নের উদ্বোধন হয়। এই সময় প্রধান অতিথি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান এবং বিশেষ অতিথি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য প্রফেসর শহীদ উদ্দিন আহমেদ যথাক্রমে বাংলাদেশের এবং ব্রিটেনের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন।
রিইউনিয়নের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের পর আহবায়ক ব্যারিষ্টার আনিস আহমদের সভাপতিত্বে এবং সম্পাদক মারুফ চৌধুরীর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত অধিবেশনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রধান অতিথি প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান, বিশেষ অতিথি সাবেক উপাচার্য প্রফেসর শহীদ উদ্দিন আহমেদ, হাই কমিশনরার নাজমুল কাউনাইন, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক সুলতান মাহমুদ শরীফ, যুগ্ম আহবায়ক হাবিব রহমান, লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি সৈয়দ নাহাস পাশা, ঢাকা থেকে আগত বিডি নিউজ২৪.কমের প্রধান সম্পাদক তৌফিক ইমরুজ খালেদী, এ্যালামনাই শাহগীর বখত ফারুক, দেওয়ান গৌস সুলতান ও সৈয়দ সাজেদুর রহমান ফারুক প্রমুখ। বক্তারা ভাষা আন্দোলন, বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধ ও সকল গণতান্ত্রিক আন্দোলনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকা ও ত্যাগের কথা শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন। তাঁরা যুক্তরাজ্যে বসবাসরত সাবেক শিক্ষার্থীদের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশে দাঁড়ানোর আহবান জানান। উদ্বোধনী অধিবেশনে মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।
IMG_5848ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এ্যালামনাই ইউকের প্রথম রিইউনিয়ন উপলক্ষে ১০ সেপ্টেম্বর রোববার লন্ডনের উপকন্ঠে ইলফের্ডের দ্যা উইলোজ ইভেন্টস যেন ঢাকা বিশ্বদ্যিালয়ের আর একটি ক্যাম্পাসে পরিণত হয়েছিল। মিলন মেলায় মেতে উঠা সাবেক শিক্ষার্থীরা ফিরে গিয়েছিল ক্যাম্পাস জীবনের ঐ হারানো দিনগুলোতে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পাশেই শোভা পাচ্ছিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোগ্রামসহ অবিকল সেই লাল বাস। অনেকেই ঐ বাসের পাশে দাঁড়িয়ে বা ভেতরে গিয়ে তুলেছেন ছবি।
IMG_5855উন্মুক্ত স্থানে জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান, হলের অভ্যন্তরে অনুষ্ঠিত অধিবেশনে আমন্ত্রিত অতিথিদের ভাষণ, সুসাদু মধ্যান্ন ভোজ এবং উপস্থিত এ্যালামনাইদের সরস স্মৃতিচারণের পর সাবেক শিক্ষার্থীদের জন্য অন্যতম চমক ছিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বহু ছাত্র আন্দোলনের স্মৃতি বিজড়িত ঐতিহ্যবাহী মধুদার রেস্তোঁরা। পরিবার-পরিজন এবং আমন্ত্রিত অতিথিদের নিয়ে তাঁরা হলের পাশে মধুর ক্যান্টিনে খেয়েছেন মিষ্টি-পায়েস, আর পান করেছেন চা-কফি। ছেলে-মেয়েদের জন্য ছিল হাওয়াই-মিঠাই (ক্যান্ডি ফ্লস) ও পপকর্ণ।
thumbnail_IMG_20170912_104355সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ছিল খুবই উপভোগ্য। লন্ডনের প্রতিষ্ঠিত শিল্পীদের পাশাপাশি এ্যালামনাই এবং তাঁদের ছেলে-মেয়েরাও এতে অংশ নিয়েছে। অনেক সাবেক শিক্ষার্থী গানের তালে তালে দলবেঁধে নাচতেও কুন্ঠাবোধ করেননি। সবাই যেন হারিয়ে গিয়েছিলেন তাদের সেই পুরনো ক্যাম্পাস জীবনে।
প্রথম রিইউনিয়নকে স্মরণীয় করে রাখার জন্য বের করা ‘ক্যাম্পাস‘ নামে একটি আকর্ষণীয় ম্যাগাজিন প্রকাশ করা হয়েছে। এতে ব্রিটেনের রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথ এবং বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর মো: আবদুল হামিদ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালযের ভাইস চ্যান্সেলর (সদ্য বিদায়ী) অধ্যাপক আ আ স ম আরেফিন সিদ্দিকের বাণী রায়েছে। ম্যাগাজিনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এ্যালামনাই ডাকসুর সবচেয়ে জনপ্রিয় সাবেক ভিপি ও ঊনসত্তুরের ছাত্র-গণ অভ্যুত্থানের নেতা ও বর্তমানে বাণিজ্য মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম ভিপি ও বর্তমানে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, ডাকসুর সাবেক সাহিত্য সম্পাদক আলী রীয়াজ, বাংলাদেশের জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি শফিকুর রহমান, বাসস এর সাবেক প্রধান সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা হারুন হবীব এবং যুক্তরাজ্যে বসবাসরত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক এ্যালামনাইর লেখা রয়েছে। আরও রয়েছে যুক্তরাজ্যের প্রায় ৩০০ জন এ্যালামনাইর ডিপার্টমেন্ট ও হল সহ প্রোফাইল এবং ছবি।

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *