রাশেদ শ্রাবনকে অস্ট্রেলিয়ার বাংলাদেশ কমিউনিটির সংবর্ধনা


Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

নিউজ ডেস্ক
সত্যবাণী

সিডনি: সামাজিক কাজে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে অস্ট্রেলিয়ার সিটিজেন অব দ্য ইয়ার-২০১৮ খেতাব পাওয়া বাংলাদেশি সাংবাদিক রাশেদ শ্রাবনকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে। রোববার রাশেদ শ্রাবনকে নাগরিক সংবর্ধনা দেয় অস্ট্রেলিয়ায় বসবাসরত বাংলাদেশি কমিউনিটি।

অস্ট্রেলিয়ার সরকার প্রতিবছর ২৬ জানুয়ারি ন্যাশনাল অস্ট্রেলিয়ান ডে উপলক্ষে এই সম্মাননা দিয়ে থাকে। সামাজিক কাজে বিশেষ অবদানের জন্য ব্যাংকসটোন কেন্টারবারি সিটি থেকে এ বছর এই সম্মাননা পেলেন প্রবাসী বাংলাদেশি সাংবাদিক রাশেদ শ্রাবন।

সিডনির বাংলাদেশি পালকি ফাংশন সেন্টারে গতকাল সন্ধ্যায় আয়োজন করা হয় সংবর্ধনা অনুষ্ঠান। সংবর্ধনা কমিটির আহ্বায়ক কাউন্সিলর মোহাম্মদ জামানের আমন্ত্রণে অনুষ্ঠান শুরু হয় বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে। মোহাম্মদ জামান টিটুর শুভেচ্ছা বক্তব্যের পর অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সাংবাদিক সায়মন সারওয়ার।

এ সময় পালকি ফাংশন সেন্টার বাংলাদেশি বিশিষ্টজনের মিলনমেলায় পরিণত হয়। দল-মত নির্বিশেষে এ যেন ছিল এক অন্য রকম পরিবেশ।

অনুষ্ঠানের মঞ্চে ছিলেন অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের প্রধান উপদেষ্টা গামা কাদির, সাংবাদিক ও কলাম লেখক অজয় দাশগুপ্ত, সাহিত্যিক ও গবেষক ডক্টর কাইয়ুম পারভেজ, বিএনপি অস্ট্রেলিয়ার উপদেষ্টা মনিরুল হক জর্জ, দেশ-বিদেশ পত্রিকার সম্পাদক বদরুল আলম ও কাউন্সিলর মোহাম্মদ হুদা।

27908145_10213424768406172_51974194093000339_o

এ ছাড়া বিশিষ্টজনের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন একুশে একাডেমি অস্ট্রেলিয়া সভাপতি ডাক্তার ওয়াহাব বকুল, ডাক্তার আসাদ শামস, অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সভাপতি মোহাম্মদ রেজাউল হক, বঙ্গবন্ধু কাউন্সিল সিডনির সাধারণ সম্পাদক গাউসুল আলম শাহাজাদা, অস্ট্রেলিয়া রিসার্চ একাডেমির ভাইস প্রেসিডেন্ট ডক্টর শফিকুর রহমান, রকডেল বাংলা স্কুলের সাবেক প্রেসিডেন্ট এবং সেন্ট জর্জ মাইগ্রেশন অ্যান্ড রিফিউজি সেন্টারের ডিরেক্টর শামসুজ্জোহা স্বপন, ওয়েস্টার্ন সিডনি ইউনিভার্সিটি আইন বিভাগের গবেষক ডক্টর নাহিদ হোসেন, এনটিভি অস্ট্রেলিয়ার হেড অব ক্রিয়েটিভ জাহাঙ্গীর হাবিব, বাংলাদেশ স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট শাকিল আহমেদ প্রমুখ।

সাহিত্যিক ও গবেষক ডক্টর কাইয়ুম পারভেজ বলেন, ‘আমি যে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, রাশেদ শ্রাবন সেই বিশ্ববিদ্যালয়ের পিএইচডি স্টুডেন্ট। এটা আমার জন্য বড় সম্মানের, আমি আজকে তার পরিচয়ে পরিচিত। আশা করি, তার এই সামাজিক কাজ আগামী দিনে আমাদের কমিউনিটিকে সমৃদ্ধ করবে।’

27982941_10213424770646228_592063023166026877_o

অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ নেতা গাউসুল আলম শাহাজাদা মেডেল পরিয়ে দেন রাশেদ শ্রাবনকে। এ ছাড়া অস্ট্রেলিয়া বিএনপির পক্ষে মনিরুল হক জর্জ এবং ওয়াহাব বকুল রাশেদ শ্রাবনকে মেডেল পরিয়ে দেন। এরপর অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশ প্রেস ক্লাব, এনটিভি অস্ট্রেলিয়া এবং বাংলাদেশ স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকেও পরিয়ে দেওয়া হয় মেডেল। সবশেষে সংগীতশিল্পী মিঠু এবং ইভানা খালেদের সুরের মূর্ছনায় রাতের ডিনারের মাধ্যমে শেষ হয় অনুষ্ঠানের।

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *