স্পেনে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন


Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

কবির আল মাহমুদ
সত্যবাণী

মাদ্রিদ, স্পেন থেকেঃ স্পেনপ্রবাসী বাংলাদেশিরা যথাযোগ্য মর্যাদায় বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করেছেন। স্পেনে বাংলাদেশ দূতাবাসের পাশাপাশি রাজধানী শহর মাদ্রিদে  অস্থায়ী শহীদ মিনার স্থাপন করে প্রবাসী বাংলাদেশিরা ভাষা শহীদদের স্মরণ করেন।২১ ফেব্রুয়ারি সোমবার সকালে স্পেনে মাদ্রিদে বাংলাদেশ দূতাবাসে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করার মাধ্যমে একুশের কর্মসূচি শুরু করেন রাষ্ট্রদূত হাসান মাহমুদ খন্দকার। পরে সকাল ১১টায় দূতাবাস মিলনায়তনে একুশের তাৎপর্য নিয়ে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। আলোচনা সভার শুরুতেই ৫২ এর ভাষা আন্দোলনে শহীদদের স্মরণে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। পরে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি , প্রধানমন্ত্রী এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী-পররাষ্ট্র পতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করে শুনান দূতাবাসের হেড অব চ্যান্সেরি এম হারুন আল রাশিদ ও ফার্স্ট সেক্রেটারি (লেবার উইং) মোহাম্মদ শরীফুল ইসলাম। একুশের আলোচনায় রাষ্ট্রদূত হাসান মাহমুদ খন্দকার বলেন, একুশের মূল কথাই হচ্ছে ঐক্যের ডাক। তিনি বলেন ,১৯৫২ সালে যে ইতিহাস আমরা রচনা করেছিলাম, সে ইতিহাস এখন বিশ্বময় ছড়িয়ে পড়েছে। ভাষা আন্দোলনের অন্যতম মৌলিক বিষয় ছিল একটি অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার। তিনি প্রবাসে মাতৃভাষা বাংলা চর্চার জন্যও প্রবাসী বাংলাদেশিদের প্রতি অনুরোধ জানান। এ ছাড়া ভাষা শহীদদের স্মরণ করার পাশাপাশি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকেও তিনি শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করেন।
28383960_1694420743937165_495433631_nরাষ্ট্রদূত হাসান মাহমুদ খন্দকার বলেন, মাতৃভাষার জন্য আত্মদান পৃথিবীর ইতিহাসে এক বিরল ঘটনা। ইউনেসকো এ অনন্য ঘটনাকে স্বীকৃতি দিয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ঘোষণা দেওয়ায় আজ সারা পৃথিবীতে দিবসটি পালিত হচ্ছে। একুশের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে পরবর্তীতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে দীর্ঘ নয় মাসের সশস্ত্র সংগ্রামের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রের জন্ম হয়েছে। তিনি একুশের চেতনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশ ও ভিশন ২০২১ বাস্তবায়নের জন্য প্রবাসী বাংলাদেশিদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।বর্তমান সরকার দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত হাসান মাহমুদ খন্দকার বলেন , বাংলাদেশের বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপুকে স্পেনের সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা পদক তার প্রমান।এর মাধ্যমে আগামীতে  দুই দেশের সম্পর্ক আরো বন্ধুত্বপূর্ণ হবে এবং বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে তৈরী হচ্ছে আগামীর বাংলাদেশ।এ পদক প্রদানের জন্য স্পেনের রাজাকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।
স্পেনে স্থায়ী শহীদ মিনার স্থাপনের দাবি প্রসঙ্গে রাষ্ট্রদূত বলেন, বাংলাদেশ দূতাবাস স্পেনের প্রশাশনের সাথে এ ব্যাপারে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে।
আলোচনা সভা শেষে একুশের তাৎপর্য নিয়ে নির্মিত একটি ডকুমেন্টারি প্রদর্শন করা হয়। সমস্বরে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়। অনুষ্ঠানে বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশি উপস্থিত ছিলেন।এসময় কমিউনিটি নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আক্তার হোসেন আতা ,দুলাল সাফা , রিজভী আলম, এ কে এম জহিরুল ইসলাম,শেখ আবদুর রহমান ও ফয়সাল ইসলাম,স্পেন বাংলা প্রেসক্লাব সভাপতি সাহাদুল সুহেদ ,জাকির হোসাইন ও হোসেন আহমেদ  প্রমুখ।
28383642_1694420737270499_705358798_nবাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেনের উদ্যোগে মাদ্রিদে বাংলাদেশি অধ্যুষিত লাভাপিয়েস চত্বরে অস্থায়ী শহীদ মিনার স্থাপন ও সেখানে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান বাংলাদেশিরা। সন্ধ্যা ৭টায় অস্থায়ী শহীদ মিনারে প্রথমে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন রাষ্ট্রদূত হাসান মাহমুদ খন্দকার। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন  দূতাবাসের হেড অব চ্যান্সেরি এম হারুন আল রাশিদ ,দূতাবাসের কমার্শিয়াল কউন্সিলর নাভিদ শফিউল্লাহ, ফার্স্ট সেক্রেটারি (লেবার উইং) মোহাম্মদ শরীফুল ইসলাম ও দূতাবাস কর্মকর্তারা। এরপর পর্যায়ক্রমে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন, আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনের স্থানীয় শাখা, বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠনের স্থানীয় শাখা, স্পেন বাংলা প্রেস ক্লাব ,গ্রেটার সিলেট অ্যাসোসিয়েশন, বৃহত্তর নোয়াখালী সমিতি, চট্টগ্রাম সমিতি,নরসিংদী সমিতি , ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ঐক্য পরিষদ, বৃহত্তর ফরিদপুর কল্যাণ সমিতি, মান্নান বাংলা স্কুল, বাংলাদেশ ব্যবসায়ী সমিতি, ভালিয়ান্ত বাংলা, বাংলা কাগজসহ বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে।বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কাজী এনায়েতুল করিম তারেক  ও সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান সুন্দর  দল মত নির্বিশেষে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের কর্মসূচিকে সফল করায় সকলকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।এ ছাড়া মাদ্রিদে বাংলাদেশি আরও কয়েকটি সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠন পৃথকভাবে একুশ উপলক্ষে আলোচনার আয়োজন করে।

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *