আন্দোলনের ভয় দেখিয়ে লাভ হবে না: ওবায়দুল কাদের


Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

নিউজ ডেস্ক
সত্যবাণী

ঢাকাঃ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন,নির্বাচনের আগে বিএনপির কোনো আন্দোলনই সফল হবে না। কারণ,মানুষ এখন নির্বাচনমুখী।

আজ সোমবার রাজধানীর মানিক মিয়া এভিনিউয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে কাদের এসব কথা বলেন।ওবায়দুল কাদের বলেন,এই কোটার ভেতর সরকারবিরোধী আন্দোলনের রঙিন খোয়াব কর্পূরের মতো উবে গেছে।বিএনপি শুধু খোয়াব দেখবে,আর আন্দোলন হবে না।বাংলাদেশের মানুষ এখন পুরোপুরি নির্বাচনের মুডে। দুটি সিটি করপোরেশনে হচ্ছে।এরপর আরো পাঁচটি সিটি করপোরেশন নির্বাচন। সেমিফাইনাল চলছে। এখন আর আন্দোলনে কাজ হবে না। নির্বাচনের সেমিফাইনাল।

এদিন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) ভ্রাম্যমাণ অভিযান পরিদর্শন করেন তিনি। মন্ত্রী বলেন, শুধু চালক নয়, যাত্রী এবং পথচারীদেরও সচেতন হতে হবে। উল্টো পথে গাড়ি না চালাতে এবং ফুটওভারব্রিজ ব্যবহারের পরামর্শ দেন তিনি। কাদের বলেন, আইন মেনে চলতে সবার আগে প্রয়োজন মানসিকতার পরিবর্তন। তিনি কথা বলেন দেশের সাম্প্রতিক বিভিন্ন ইস্যু এবং বিএনপির রাজনীতি প্রসঙ্গে।কোটা সংস্কার আন্দোলনে নেতৃত্বে থাকা শিক্ষার্থীদের মধ্যে যারা সরকারবিরোধী কার্যক্রমের সঙ্গে সম্পৃক্ত, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান কাদের। তিনি বলেন, ‘যেই জড়িত—যেমন কুকুর তেমন মুগুর।সম্প্রতি জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ এক জনসভায় আগামী নির্বাচনে আসন বণ্টনের যে দাবি করেছেন, তারও সমালোচনা করেন কাদের।ওবায়দুল কাদের বলেন,অ্যালায়েন্সের (জোট) কে কত আসন পাবে, সেটা আমাদের বৈঠকে সিদ্ধান্ত হবে। এটা আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সব সময় ঠিক হয়। প্রকাশ্যে আমরা কে কত সিট দাবি করছি, এটা আমার মনে হয় না বললেই ভালো। অচিরেই এ ব্যাপারে যাদের যাদের সঙ্গে সমঝোতা হবে, আসন ভাগাভাগি হবে। সেটা আমরা নিজেরা বসে ঠিক করে নেব।দল নয়, বরং ব্যক্তির জনপ্রিয়তার ভিত্তিতেই সম্ভব্য প্রার্থী নির্ধারণে শরিক দলগুলোর সঙ্গে জোট গঠনের প্রক্রিয়া শিগগিরই শুরু হবে বলে জানান আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক।

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *