পাহাড়ে শান্তি বিনষ্টকারীদের ছাড় নয়, অচিরেই শান্তি ফিরে আসবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী


Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

নিউজ ডেস্ক
সত্যবাণী

ঢাকাঃ পার্বত্য চট্টগ্রামসহ পাহাড়ি অঞ্চলগুলোকে অস্থিতিশীল করে তোলার পেছনে দোষীদেরকে খুঁজে বের করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।খুব দ্রুতই রাঙামাটিতে নিহত শক্তিমান চাকমার হত্যাকারীদের বিচারের আওতায় আনা হবে বলেও তিনি জানান।

আজ শনিবার সকালে বাংলা একাডেমিতে এক অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এসব কথা বলেন।তথ্য মতে,গত পাঁচ মাসে পাহাড়ে ১৮ জন নিহত হয়েছে।এ জন্য আঞ্চলিক রাজনৈতিক সংগঠনগুলো একে অপরকে দোষারোপ করছে। সর্বশেষ ৩ মে নানিয়ারচর উপজেলায় নিজ কার্যালয়ে সামনে গুলি চালিয়ে হত্যা করা হয় উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেএসএসের (এমএন লারমা) অন্যতম শীর্ষ নেতা শক্তিমান চাকমাকে।একদিন পরেই শক্তিমান চাকমার অন্তোষ্টিক্রিয়ায় অংশ নিতে যাওয়ার পথে সশস্ত্র হামলায় নিহত হন ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিকের অন্যতম শীর্ষ নেতা তপন জ্যোতি চাকমা বর্মা।একই দলের নেতা সুজন চাকমা,সেতুলাল চাকমা, টনক চাকমা এবং তাদের গাড়িচালক সজীব।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন,পাহাড়ি অঞ্চল যেটা নাকি একটা অশান্তির জায়গা ছিল,সেটা যেমন আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে একটা শান্তির পরিবেশ ফিরেছে।সেইটা আমরা অক্ষুণ্ণ রাখব।যেকোনো অবস্থাতেই এই দোষীদের আমরা আইনের আওতায় নিয়ে আসব।পাহাড় অস্থিতিশীলকারীদের বিরুদ্ধে সরকার জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে বলেও জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।এ অনুষ্ঠানে শিল্পকলায় অবদান রাখার জন্যে অধ্যাপক মর্তুজা বশীর,সাহিত্যে অধ্যাপক ড. সফিউদ্দীন আহমদসহ ১০ জন মুক্তিযোদ্ধা ও গুণীজনকে সম্মাননা প্রদান করে ‘বাংলা দর্পন’।এ সময় সম্মাননা পাওয়া ব্যক্তিদের হাতে স্মারক তুলে দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভুঁইয়া ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক।

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *