ভারতের ঝাড়খণ্ডে কিশোরীকে ধর্ষণের পর পুড়িয়ে হত্যা


Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
সত্যবাণী

ভারতঃ ভারতের ঝাড়খণ্ডে ধর্ষণের অভিযোগ করায় ক্ষিপ্ত অভিযুক্তরা বাবা-মাকে মারধর করে ধর্ষিত কিশোরীর গায়ে আগুন ধরিয়ে তাকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে।পুলিশ বলছে, ধর্ষণের ব্যাপারে কিশোরী মেয়েটির বাবা-মা গ্রামের গণ্যমান্য ব্যক্তিদের কাছে অভিযোগ করার পর অভিযুক্তদের কান ধরে একশোবার উঠ-বস করা এবং সাড়ে সাতশো ডলার জরিমানার শাস্তি দেয়া হয়।খবর বিবিসির।এতে ক্ষিপ্ত অভিযুক্তরা মেয়েটির বাবা-মাকে মারধর করে এবং পরে ধর্ষিত মেয়েটির গায়ে আগুন ধরিয়ে তাকে হত্যা করে।পরে পুলিশ ওই কিশোরীকে ধর্ষণ ও পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগে ১৪ জনকে গ্রেফতার করেছে।স্থানীয় থানার ওসি গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, দুই অভিযুক্ত মেয়েটির বাবা-মাকে পিটায়। এরপর তারা মেয়েটির গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয়।পুলিশ বলছে, মেয়েটিকে অপহরণ করে একটি জঙ্গলে নিয়ে ধর্ষণ করা হয়েছিল।সেদিন মেয়েটির বাবা-মা বাড়িতে ছিলেন না। তারা একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়েছিলেন।পরে ঘটনাটি জানতে পেরে মেয়েটির বাবা-মা গ্রামের গণ্যমান্য ব্যক্তিদের কাছে অভিযোগ করেছিলেন।ভারতে প্রতি বছর অসংখ্য ধর্ষণের ঘটনা ঘটলেও থানায় রেকর্ড হয় মাত্র ৪০ হাজারের মতো।

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *