বহু কেন্দ্র থেকে ধানের শীষের এজেন্ট বের করে দেয়ার অভিযোগ


Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

নিউজ ডেস্ক
সত্যবাণী

খুলনা সিটি নির্বাচনঃ খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে (কেসিসি) বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে বিএনপি’র পোলিং এজেন্টদের বের করে দেওয়া, ব্যালট পেপার কেড়ে নেওয়া এবং মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জুর নেতাকর্মীদের অভিযোগ,তারা চাপে আছেন।ভয়ে গলায় কার্ড ঝুলাতে সাহস পাচ্ছেন না।’আমাদের প্রতিনিধি তৌহিদ জামান,আসাদুজ্জামন সরদার ও সামসুর রহমান বিভিন্ন কেন্দ্র ঘুরে,ভোটার ও ধানের শীষের এজেন্টদের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানিয়েছেন।প্রিসাইডিং অফিসার আতিউর রহমান বলেছেন,সিরাজুল ইসলাম নামে এক পোলিং এজেন্ট আমার কাছে অভিযোগ করেছেন,নৌকার কর্মীরা তাকে মারধর করেছেন।২২ নম্বর ওয়ার্ডের ১১৯ নম্বর কেন্দ্রে থেকে ধানের শীষের এক পোলিং এজেন্টকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এজন্য ওই কেন্দ্রে ধানের শীষের কোনও পোলিং এজেন্টকে পাওয়া যায়নি।এর আগে সকালে রহিমা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোটদান শেষে বিএনপি প্রার্থী মঞ্জু একই অভিযোগ করেন। তিনি সাংবাদিকদের বলেন,আমার এজেন্টদের বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়ার খবর পেয়েছি। এছাড়া বিভিন্ন জায়গায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করা হচ্ছে।খবর পেয়েছি ২২, ২৫, ২৯, ৩০ ও ৩১ নম্বর ওয়ার্ডের কোনও কেন্দ্রেই বিএনপির এজেন্ট নেই। তাদের বের করে দেওয়া হয়েছে।৩০টি সেন্টারের খবর পেয়েছি, যেখান থেকে আমার পোলিং এজেন্টদের বের করে দেওয়া হয়েছে। এসব কেন্দ্রে আমার এজেন্টদের প্রবেশের ব্যবস্থা করতে নির্বাচন কমিশনের কাছে অনুরোধ জানাই।’ তবে তিনি নির্বাচনের শেষ সময় পর্যন্ত অপেক্ষা করবেন বলে জানিয়েছেন।

আর ২৫ নম্বর ওয়ার্ডের ২১৭ নম্বর কেন্দ্রে (সিদ্দিকীয়া) ব্যালট পেপার কেড়ে নিয়ে নৌকার সমর্থকরা সিল মেরেছে বলে অভিযোগ করেছেন একজন ভোটার।তবে এখন পর্যন্ত নগরীর কোনও কেন্দ্র থেকে সহিংসতার কোনও খবর পাওয়া যায়নি। বিভিন্ন কেন্দ্র ঘুরে দেখা গেছে, শান্তিপূর্ণ পরিবেশে লম্বা লাইনে দাঁড়িয়ে ভোটাররা অপেক্ষা করছেন। একইসঙ্গে ভোটার উপস্থিতিও বেশ ভালো।এদিকে, ২৫ নম্বর ওয়ার্ডের ২১৭ নম্বর কেন্দ্রে ব্যালট পেপার কেড়ে নিয়ে নৌকায় সিল মারার অভিযোগ পাওয়া গেছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ভোটার বলেন, সকাল সাড়ে ১০টার পর কিছু লোক ধানের শীষ, লাঙলের ভোটারদের কাছ থেকে ব্যালট পেপার কেড়ে নিয়ে নৌকায় সিল মেরেছে।আব্দুস সোবহান নামে এক যুবক বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কেন্দ্র থেকে সামান্য দূরে এসে বলেন, ‘ভাই, আমার ব্যালটটি তারা (নৌকার লোকজন) কেড়ে নেয়। এরপর তাতে তাদের মার্কার সিল মারে। আমি আমার কাঙ্ক্ষিত মার্কায় ভোট দিতে পারিনি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক নৌকার এক কর্মী সাংবাদিকদের বলেন,এই কেন্দ্রে রাজাকারদের ভোট বেশি।আপনারা আছেন বলেই কাউকে বের করে দিতে পারছি না।এই কেন্দ্রে দায়িত্বপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা ইন্সপেক্টর আকবর জানান,সকালে অনেক ভোট কাস্ট হয়েছে। এখন একটু কম।দুপুরের পর ফের বাড়বে মনে হয়।ব্যালট পেপার কেড়ে নেওয়ার বিষয়টিতে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি বলেন, ‘শান্তিপূর্ণ ভোটগ্রহণ হচ্ছে।আজ মঙ্গলবার (১৫ মে) সকাল ৮টায় খুলনায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণ চলবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত। নির্বাচন উপলক্ষে নেওয়া হয়েছে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *