ব্রিটিশ রাজকীয় বিয়ে দেখল বিশ্ববাসী


Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

নিউজ ডেস্ক
সত্যবাণী

যুক্তরাজ্যঃ গোটা বিশ্ব যে রাজকীয় বিয়ের দিকে তাকিয়ে ছিল, অবশেষে আজ শনিবার বাংলাদেশ সময় বিকেল ৫টায় অনুষ্ঠিত হলো সেই আয়োজন।যাবতীয় আনুষ্ঠানিকতার পর স্বামী-স্ত্রী হিসেবে ঘোষণা করা হলো ব্রিটেনের প্রিন্স চার্লস ও প্রয়াত প্রিন্সেস ডায়ানার ছোট ছেলে প্রিন্স হ্যারি (৩৩) এবং মার্কিন অভিনেত্রী মেগান মার্কলের (৩৬) নাম।ব্রিটিশ রাজপ্রাসাদ উইন্ডসর ক্যাসেলের বিশাল অঙ্গনের চৌদ্দ শতকের সেন্ট জর্জেস চ্যাপেলে (খ্রিস্টান উপাসনালয়) বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়।ছয় শতাধিক আমন্ত্রিত অতিথির মধ্যে বেশির ভাগই ছিলেন বর-কনের আত্মীয়স্বজন।এঁদের সামনেই আংটি বদল এবং সারা জীবন পাশে থাকার শপথ নেন বর-কনে।তবে বিয়েতে আড়াই হাজারেরও বেশি সাধারণ মানুষকে আমন্ত্রণ জানানো হয়। একেবারে সামনে থেকেই এরা দেখেছে রাজকীয় বিয়ের সব আয়োজন।বিয়েতে ব্রিটিশ ডিজাইনার ওয়েইট কেলারের ডিজাইন করা সাদা গাউন পরেছিলেন মেগান মার্কল। মাথায় ছিল রানী মেরির ঐতিহ্যবাহী হীরা বসানো টায়রা।যেটি তাঁকে পরতে দিয়েছেন বর্তমান রানি এলিজাবেথ।মেগানের পোশাকের সবচেয়ে আকর্ষণীয় অনুষঙ্গটি হলো মাথার ওপরে থাকা স্বচ্ছ কাপড়ের তৈরি পর্দা বা ভেইল।পাঁচ মিটার লম্বা এই ভেইলটি তৈরি হয়েছে সিল্ক কাপড় দিয়ে।এর ফুলেল ছাপা প্রতিনিধিত্ব করছে কমনওয়েলথভুক্ত ৫৩টি দেশকে।কনে মেগান নিজেই এই নকশার ভেইল চেয়েছিলেন। কারণ পদাধিকার বলে বিয়ের পর কমনওয়েলথই হবে তাঁদের স্বামী-স্ত্রীর কাজের গুরুত্বপূর্ণ জায়গা।বিয়ের অনুষ্ঠানস্থলে মেগান মার্কলের সঙ্গে আসেন ১০ জন ব্রাইডসমেইড এবং পেইডবয়েস।এঁদের মধ্যে ছিলেন প্রিন্স জর্জ এবং প্রিন্সেস শার্লটও।নববিবাহিত এই দম্পতি ডিউক এবং ডাচেস অব সাসেক্স নামে পরিচিত হবে।

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *