নারী হয়ে এতিমের টাকা মেরে খাওয়া-এটা চিন্তাই করা যায় না, সে জাতির জন্য কলঙ্ক: সংসদে প্রধানমন্ত্রী


Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

নিউজ ডেস্ক
সত্যবাণী

জাতীয় সংসদ থেকেঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন,একজন নারী মানে একজন মা,সেই নারী হয়ে এতিমের টাকা মেরে খাওয়া,এটা চিন্তাই করা যায় না।এটা সমস্ত নারীর জন্য কলঙ্ক।বুধবার বিকেলে জাতীয় সংসদ অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে সংরক্ষিত আসনের এমপি নুরজাহান বেগমের সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন,কোর্টের রায়ে তার (খালেদা জিয়া) সাজা হয়েছে।মামলাটি প্রায় ১০ ধরে বছর চলেছে।বিএনপির এত জাদরেল আইনজীবী,তারা কেউ তো তাকে নির্দোষ প্রমাণ করতে পারলো না,বরং তারা জানতো তিনি অপরাধী।তাই আগের দিন তাদের দলের গণতন্ত্রের ৭ ধারা বাতিল করলো।দুর্নীতিবাজকে নেতা করার সুযোগ করে দিল।এটাই প্রমাণ হয় তিনি অপরাধী। এটা নারী জাতির জন্য কলঙ্কের।লজ্জার।তিনি আরো বলেন,খালেদা জিয়া দুর্নীতির দায়ে কোর্টের রায়ে জেলে আছেন।মামলাটা আমরা করিনি।কোর্টের রায়ে তার সাজা হয়েছে।প্রধানমন্ত্রী বলেন,দেশ যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে তাতে আমাদের মেয়েরাই লাভবান হবে।আমি বলবো,নারীর ক্ষমতায়ন,সুরক্ষা,উন্নয়ন সবকিছুই নির্ভর করে সুষ্ঠু নির্বাচন,যার মাধ্যমে গণতান্ত্রিক ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে।গণতান্ত্রিক ধারাবাহিতা না থাকলে দেশের নারীরা নির্যাতিত হতো উল্লেখ করে  তিনি বলেন,২০০১ সালে বিএনপি ক্ষমতায় এসে সারাদেশে নারীদের ওপর নির্যাতন চালায়।এমন কোনো জায়গা ছিল না যেখানে নারীরা নির্যাতন হয়নি।যে কারণে তারা ২০০৮ সালের নির্বাচনে ভোট পায়নি,এটাই বাস্তবতা।

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *