মাদ্রিদে অবৈধ অভিবাসীদের জন্য ‘সিটি কার্ড’ চালু করেছে মাদ্রিদ সিটি কর্পোরেশন


Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

কবির আল মাহমুদ
সত্যবাণী

মাদ্রিদ,স্পেন থেকেঃ মাদ্রিদে অবৈধ অভিবাসীদের জন্য ‘সিটি কার্ড’ চালু করেছে মাদ্রিদ সিটি কর্পোরেশন।সিটি কর্পোরেশন এর ‘পাইলট প্ল্যান’ এর অংশ হিসেবে মাদ্রিদ সেন্টারে বসবাসরত অবৈধ অভিবাসীদের এই কার্ড  প্রদান করা হবে।গতকাল (১৮জুলাই) বুধবার স্থানীয় সময় সকাল ৯টায় সিটি কর্পোরেশনের ওকা সেন্ত্র অফিসে এ কার্ড প্রদান কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন সিটি কর্পোরেশনের প্রথম ডেপুটি মেয়র মার্তা ইগেরাস।প্রথম দিনে ৬জন বাংলাদেশিসহ ৭জন অভিবাসী সিটি কার্ড গ্রহণ করেন।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মাদ্রিদ সিটি কর্পোরেশনের ডেপুটি মেয়র মার্তা ইগেরাস বলেন,সম্পূর্ন বিনামূলে ‘সিটি কার্ড’ প্রদান করা হচ্ছে। মাদ্রিদ সেন্টারে বসবাসরত অভিবাসীরা সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এ কার্ড এর জন্য আবেদন করতে পারবেন।পরবর্তীতে শহরের অন্যান্য জায়গায় বসবাসরত অভিবাসীরা এ সুযোগ পাবেন।সিটি কার্ড প্রদানের প্রস্তাবকে অনুমোদন দেয়ায় স্পেনের নতুন ক্ষমতাসীন দল সোশ্যালিস্ট পার্টিকেও ধন্যবাদ জানান তিনি।‘সিটি কার্ড’ প্রদানের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাদ্রিদ সিটি কর্পোরেশনের ডেপুটি মেয়র খরখে গ্রাসিয়া কাস্তানিয়ো,যোগাযোগ সমন্বয় বিষয়ক প্রধান ও কাউন্সিলর পাবলো সতো এবং স্পেনের ক্ষমতাসীন দল সোশ্যালিস্ট পার্টির মুখপাত্র পুরিফিকাসিয়ন কাউসাপিয়ে। কাউন্সিলর পাবলো সতো তার বক্তব্যে মাদ্রিদ শহরের অধিবাসী হিসেবে কার্ড প্রাপ্ত নতুন ৭জনকে শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন,সিটি কর্পোরেশন এর কার্ড অধিবাসীদের সুন্দর ভবিষ্যত রচনায় সহযোগিতা করবে।তিনি আরো বলেন,সিটি কার্ড’ অনথিভুক্ত অভিবাসীদের সিটির বাসিন্দা হিসেবে স্বীকৃতির একটি সনদ।এর মাধ্যমে কার্ডপ্রাপ্তরা সিটি কর্পোরেশন এর অন্তর্ভুক্ত সুযোগ সুবিধাগুলো পাবেন। বিশেষ করে বিনামূল্যে মেডিকেল সুবিধা,কর্মমূখী প্রশিক্ষণ গ্রহণ ছাড়াও সামাজিক,সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া কার্যক্রমে সম্পৃক্ত হতে পারবেন তারা।দুই বছর মেয়াদি এ কার্ড  কোন  কাজ করার অনুমতি বা অন্য দেশে ভ্রমণের অনুমতি প্রদান করবে না বলেও তিনি জানান।
সোশ্যালিস্ট পার্টির মুখপাত্র পুরিফিকাসিয়ন কাউসাপিয়ে বলেন,আজ মাদ্রিদে বসবাসরত অভিবাসীদের জন্য বিশেষ একটি দিন।অবৈধ অভিবাসী, যারা সিটি কার্ড পাবেন,তারা নিজেদের মাদ্রিদের অধিবাসী এবং সিটি কর্পোরেশনকে নিজেদের ‘ঘর’ হিসেবে ভাবতে পারবেন।
সিটি কার্ড প্রদান অনুষ্ঠানে মাদ্রিদে অভিবাসীদের নিয়ে কাজ করা একমাত্র বাংলাদেশি সংগঠন ‘ভালিয়েন্তে বাংলা’র সভাপতি ফজলে এলাহি,সাধারন সম্পাদক রমিজ উদ্দিন,বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশনের প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান সুন্দর,গ্রেটার সিলেট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি লুতফুর রহমান,স্পেন বাংলা প্রেসক্লাবের সদস্য কবির আল মাহমুদ প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।
প্রথম দিন যে ৭জন অভিবাসী সিটি কার্ড পেয়েছেন,তারা হলেন বাংলাদেশের নাফরিন আরা লোপা,আইয়ূব চুন্নু মিয়া,আব্দুল গাফফার, মো:সাইফুর রহমান,তালুকদার সিফাত ও  মোবারক মিয়া এবং চীনের মিউসিউ জাঙ।এরা সবাই অভিবাসীদের নিয়ে কাজ করা বাংলাদেশি সংগঠন ‘ভালিয়েন্তে বাংলা’র মাধ্যমে সিটি কার্ড এর জন্য আবেদন করেছিলেন বলে জানান সংগঠনটির সভাপতি ফজলে এলাহি। তিনি বলেন,সিটি কার্ড প্রাপ্তিতে মাদ্রিদ সেন্টারে দুইটি সংগঠন কাজ করছে- বাংলাদেশি সংগঠন ‘ভালিয়েন্তে বাংলা’ ও স্প্যানিশ সংগঠন ‘আগার’।বিনামূল্যে সংগঠন দু‘টি সিটি কার্ড এর আবেদনের জন্য অভিবাসীদের নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে।যাদের সিটি কর্পোরেশনের তালিকাভুক্তির সনদ (এমপাদ্রনামিয়েন্তো) নেই,কিংবা অনিয়মিত সনদ রয়েছে,তাদেরকে সেপ্টেম্বরের ভেতরেই যোগাযোগ করার অনুরোধ জানান তিনি।
‘সিটি কার্ড’ প্রাপ্তির প্রক্রিয়া:
বয়স ১৮ বছর পূর্ণ হয়েছে এমন ব্যক্তি যেকোন সনাক্তকরণ ডকুমেন্ট (যেমন পাসপোর্ট) এবং মাদ্রিদ সেন্টারে বসবাসের সনদ (এমপাদ্রনামিয়েন্তো) নেই বা অনিয়মিত কিংবা কোন সিটি কর্পোরেশন অনুমোদিত সামাজিক সেবা কেন্দ্র/সংস্থা;যারা বিনামূল্যে বসবাসের সনদ এর ব্যবস্থা করে থাকে,সে সনদ নিয়ে সিটি কর্পোরেশনে আবেদন করতে হবে।আবেদনের জন্য মাদ্রিদ সেন্টারের যেকোন ‘লিনিয়া মাদ্রিদ’এর অফিসে স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে অথবা টেলিফোনে ০১০ (৯১৫২৯৮২১০ যদি মাদ্রিদ সিটির বাইরে থেকে কল করা হয়) এপোয়েন্টমেন্ট নিতে হবে। তবে মাদ্রিদ সেন্টারে সিটি কর্পোরেশন অনুমোদিত ‘ভালিয়েন্তে বাংলা’ সংগঠনের মাধ্যমে কোন ফি ছাড়াই আবেদন করা যাবে।এ সংগঠনের সভাপতি ফজলে এলাহি জানান,ইতিমধ্যে সিটি কার্ড এর জন্য বাংলাদেশ,আফ্রিকার বিভিন্ন দেশ ও চীনের ৬৩ জন অভিবাসীর আবেদনপত্র তারা পেয়েছেন।বিনামূল্যে বসবাসের সনদসহ সার্টিফিকেট এর ব্যবস্থা করে সিটি কর্পোরেশনের লিনিয়া মাদ্রিদে তাদের আবেদনপত্র জমা দেয়ার জন্য এপোয়েন্টমেন্টও নেয়া হয়েছে বলে তিনি জানান।
প্রসঙ্গত,২০১৭ সালের ডিসেম্বরে স্পেনে প্রথম শহর হিসেবে  বার্সেলোনা সিটি কর্পোরেশন  অবৈধ অভিবাসীদের জন্য ‘সিটি অধিবাসী কার্ড’ এর ঘোষণা দিয়েছিল।কিন্তু সেজন্য অনেকগুলো শর্ত থাকায় অনেক অভিবাসী সে কার্ড পেতে ব্যর্থ হোন।

C D 2C D 3 C D 6C D8

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *