সুনামগঞ্জ-৪ আসনে আ’লীগের সম্ভাব্য প্রার্থী ব্যারিষ্টার এনামুল কবির ইমনের গণসংযোগ


Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

শামীম আহমদ তালুকদার
সত্যবাণী

ছাতক,সুনামগঞ্জ থেকেঃ সুনামগঞ্জ জেলায় আওয়ামী রাজনীতিতে বর্তমান আলোচিত মুখ ব্যারিষ্টার এনামুল কবির ইমন।তার জন্ম  জেলার জগন্নাথপুর উপজেলার বনগাঁও গ্রামে।পিতার নাম মরহুম এডভোকেট আব্দুর রইছ এবং মাতার নাম মরহুমা রফিকা রইছ চৌধুরী।এডভোকেট আব্দুর রইছ সুনামগঞ্জ জেলা আ’লীগের আমৃত্যু সভাপতি ও সুনামগঞ্জ ৩ আসনের দুইবারের নির্বাচিত এম.পি ছিলেন।এবং মাতা মরহুমা রফিকা রইছ চৌধুরী সুনামগঞ্জ জেলা মহিলা আ’লীগের সভানেত্রী ছিলেন।জানা যায়,ব্যারিস্টার এম.এনামুল কবির ইমন  ১৯৮৯ সালে সুনামগঞ্জ সরকারী জুবিলী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এস.এস.সি এবং সুনামগঞ্জ সরকারী কলেজ থেকে ১৯৯১ সালে আই.এস.সি পাশ করেন।সুনামগঞ্জ সরকারী কলেজের ছাত্র সংসদ নির্বাচনে সর্বোচ্ছ ভোট পেয়ে ছাত্রলীগের বার্ষিকী নির্বাচিত হন।তিনি ঢাকার ভূইয়া একাডেমী থেকে এ লেভেল সম্পন্ন করার পর পরবর্তীতে উচ্চ শিক্ষার জন্য ইংল্যান্ডে পাড়ী জমান।লন্ডনের ইউনিভার্সিটি অব অলভারহ্যাপটন থেকে এল এল বি অনার্স এবং লিংকন্স ইন থেকে বার এট ল’ ডিগ্রি অজর্ন করেন। ২০০২ সালে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ এর কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সদস্য নির্বচিত হন।পরবর্তীতে যুক্তরাজ্য যুবলীগের কো-অর্ডিনেটর হিসেবে দায়ীত্ব পালন করেন। তাঁর স্ত্রী ব্যারিস্টার ফারজানা শিলা বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের একজন স্বনামধন্য আইনজীবী হিসেবে কাজ করছেন। বিলাতে অবস্থানকালে দুজনেই আইন পেশায় নিযুক্ত ছিলেন। অবশেষে ২০০৪ সালে দেশে ফিরে আসেন ব্যারিস্টার দ¤পতি। সেদিন বিলেতের বাংলা পত্রিকায় ছাপা হয়েছিল,বিলেতের ঝকঝকে হাজার হাজার পাউন্ডের মায়া ছেড়ে দেশে ফিরছেন ব্যারিস্টার দ¤পতি। ২০০৯ সালে বঙ্গবন্ধু হত্যামামলার সহকারী এটর্নি জেনারেল হিসাবে আপীলেট ডিভিশনে সর্ব কনিষ্ঠ কৌশলীর দায়ীত্ব পালন করেন।তিনি পাওয়ারগ্রীড কো¤পানীর বোর্ড অব ডাইরেক্ট এবং পাওয়ারগ্রীডের লিগ্যাল এফেয়ার্স এর চেয়ারম্যান হিসাবে দায়ীত্ব পালন করছেন এবং ডিজিটাল বাংলাদেশ এ টু ওয়ান এর আইন উপদেষ্টা হিসেবে যুক্ত রয়েছেন।২০১০ সালে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ সুনামগঞ্জ জেলা শাখার আহবায়ক নির্বাচিত হন। ২০১১ সালের ডিসেম্বর মাসে বাংলাদেশের সবর্কনিষ্ট প্রশাসক হিসেবে সুনামগঞ্জের জেলা পরিষদ প্রশাসকের দায়ীত্ব প্রাপ্ত হন। ২০১২ সালে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ এর কেন্দ্রীয় কমিটির প্রেসিডিয়াম সদস্য নির্বাচিত হন। ২০১৩ সালে জাতীয় নির্বাচনে সুনামগঞ্জ-৪ (সুনামগঞ্জ সদর-বিশ্বম্ভর পুর) আসন থেকে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এর পক্ষে জননেত্রী শেখ হাসিনা তাকে সংসদ সদস্য প্রার্থী হিসাবে মনোনীত করেন। কিন্ত জোটগত কারনে এ আসনটি জাতীয় পার্টিকে এ আসনটি ছেড়ে দেয়া হয়।২০১৪ সালে আবারো দ্বিতীয় বারের মতো সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের দায়ীত্বভার গ্রহন করেন। ব্যারিস্টার এম.এনামুল কবির ইমন তাঁর রাজনৈতিক কর্মদক্ষতায় ২০১৬ সালে ২৫শে ফেব্রুয়ারি সম্মেলনের মাধ্যমে সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ স¤পাদক নির্বাচিত হন। সরকারের উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখবে তিনি আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এ আসনে সম্ভাব্য প্রার্থী হিসাবে সভা,সমাবেশ গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন।বিগত ৯ সেপ্টেম্বর হাজার জনতার উপস্থিতে হঠাও লাঙ্গল,বাচাঁও নৌকা শ্লোগানে সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন স¤পাদক ব্যারিষ্টার এনামুল কবির ইমনের বিশাল গণমিছিল-সমাবেশ করেন। জেলা আওয়ামীলীগের ব্যানারে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সুনামগঞ্জ-৪ (সদর-বিশ্বম্ভরপুর) আসনে জাতীয় পার্টির পরিবর্তে মহাজোট থেকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী দেয়ার দাবি জানানো হয়।যদিও এই গণমিছিলটি সন্ত্রাস নৈরাজ্যের প্রতিবাদে আয়োজন করা হয়েছিল কিন্তু তৃণমূল আ’লীগের হাজার হাজার নেতাকর্মী আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নৌকাপ্রতীকে প্রার্থীর দাবি জানানো হয়। গণমিছিলে নির্বাচনী এলাকার প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে তৃণমূল নেতাকর্মীরা জেলা শহরে মিছিল সমাবেশ করে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বক্তব্য প্রদান করেন।ঐ দিন সকাল থেকে সুনামগঞ্জ সদর ও বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা ছাড়াও অন্যান্য উপজেলা থেকে কয়েক হাজার নারী পুরুষ খন্ড খন্ড মিছিল দিয়ে সুনামগঞ্জ শহরে প্রবেশ করেন।সেখান থেকে মিছিল সহকারে বালুর মাঠে গিয়ে সমাবেশে মিলিত হয়। সমাবেশের আগে কয়েক হাজার নেতাকর্মীদের নিয়ে শহর প্রদক্ষিণ করেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম. এনামুল কবির ইমন। এ ব্যাপারে ব্যারিষ্টার এনামুল কবির ইমন, গত বার আমি আওয়ামীলীগের নমিনেশন পেয়েছিলাম। দলীয় সভানেত্রীর নির্দেশে আমি আসনটি ছেড়ে দিয়েছি কিন্তু এবার আ’লীগের নৌকা নিয়ে নির্বাচন করতে প্রস্তুত। সকল দিক বিবেচনা করে আশা করি জননেত্রী শেখ হাসিনা এবার আমাকেই নৌকা উপহার দিবেন।

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *