ব্রিটেন প্রবাসী বাংলাদেশীদের প্রতি পররাষ্ট্র মন্ত্রীর কৃতজ্ঞতা (ভিডিও)


Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট
সত্যবাণী

লন্ডন: সদ্য সমাপ্ত জাতীয় নির্বাচনে আন্তরিক সহযোগীতার জন্য ব্রিটেনে বসবাসরত বাংলাদেশীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন বাংলাদেশ সরকারের নবনিযুক্ত পররাষ্ট্র মন্ত্রী ড. এ, কে, আবদুল মোমেন। মঙ্গলবার স্থানীয় সময় বিকেলে পররাষ্ট্র মন্ত্রীর উদ্ধৃতি দিয়ে সংবাদ পত্রে প্রেরিত ব্রিটেনে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনার সাইদা মুনা তাসনিম স্বাক্ষরিত এক শুভেচ্ছা বার্তায় ব্রিটেন প্রবাসীদের প্রতি এই কৃতজ্ঞতা জানানো হয়।

রাজনীতিতে যোগদানে ইচ্ছুক ঔজ্জ্বল্য ছড়ানো কূটনীতিক ড. মোমেনকে ব্রিটেন প্রবাসীদের ফুলেল শুভেচ্ছা
রাজনীতিতে যোগদানে ইচ্ছুক ঔজ্জ্বল্য ছড়ানো কূটনীতিক ড. মোমেনকে ব্রিটেন প্রবাসীদের ফুলেল শুভেচ্ছা

শুভেচ্ছা বার্তায় নব নিযুক্ত পররাষ্ট্র মন্ত্রী ড. এ, কে, আবদুল মোমেন বলেন, ‘’একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেট-১ আসনে বিজয়ী হওয়ার ক্ষেত্রে সবার কাছ থেকে, বিশেষ করে যুক্তরাজ্যে বসবাসকারী প্রবাসী বাংলাদেশীদের কাছ থেকে যে সহযোগিতা, সমর্থন ও ভালোবাসা পেয়েছি, তার জন্য আমি তাঁদের কাছে গভীরভাবে কৃতজ্ঞ। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের পররাষ্ট্র নীতি বাস্তবায়নে আমাকে যে গুরু দায়িত্ব দিয়েছেন তা যেন সফলভাবে পালন করতে পারি সে জন্য আমি প্রবাসী বাংলাদেশীসহ সবার দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করছি। আশা করছি আমার এ পথ চলায় সবাই আমার সাথে থাকবেন।”

রাজনীতিতে যোগদানের লক্ষ্যে দেশে ফেরার পথে লন্ডনে দেয়া নাগরিক সংবর্ধণায় বক্তব্য রাখছেন ড. এ কে আব্দুল মোমেন
রাজনীতিতে যোগদানের লক্ষ্যে দেশে ফেরার পথে লন্ডনে দেয়া নাগরিক সংবর্ধণায় বক্তব্য রাখছেন ড. এ কে আব্দুল মোমেন

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের অক্টোবরে জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধির দায়িত্ব পালন শেষে রাজনীতিতে যোগদানের উদ্দেশ্যে দেশে ফেরার পথে লন্ডনে ব্রিটেন প্রবাসী বাংলাদেশীদের সাথে প্রথম মিলিত হন ড. এ কে আব্দুল মোমেন। ঐসময় যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীর চেষ্টায় প্রবাসীদের পক্ষ থেকে লন্ডনে তাঁকে দেয়া হয় এক বিশাল নাগরিক সংবর্ধণা। সত্যবাণীর প্রধান সম্পাদক সৈয়দ আনাস পাশার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ঐ নাগরিক সংবর্ধণায় ব্রিটেনে বাংলাদেশের তৎকালীন হাই কমিশনার এম এ হান্নানসহ কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। নাগরিক সংবর্ধনা উপলক্ষে সৈয়দ আনাস পাশার গবেষণা, নামকরণ ও লিখিত স্ক্রীপ্টে বিশিষ্ট চিত্র নির্মাতা মঈনুল হোসেন মুকুল ঐসময় তৈরী করেন একটি বিশেষ তথ্যচিত্র ‘ঔজ্জ্বল্য ছড়ানো এক কূটনীতিক’। তথ্যচিত্রটি ড. মোমেনের দীর্ঘদিনের কর্মস্থল নিউ ইয়র্ক ভিত্তিক টিভি চ্যানেল টিভিএন২৪ ঐসময় প্রচার করে।

ড. এ কে মোমেনের নাগরিক সংবর্ধণায় সভাপতির বক্তব্য রাখছেন সৈয়দ আনাস পাশা
ড. এ কে মোমেনের নাগরিক সংবর্ধণায় সভাপতির বক্তব্য রাখছেন সৈয়দ আনাস পাশা

ঐ নাগরিক সংবর্ধনায়ই নিজের রাজনীতিতে যোগদানের ইঙ্গিত দিয়ে ড. মোমেন বলেন, ‘প্রধান মন্ত্রীর নির্দেশে জাতীসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধির পদ ছেড়ে দেশে ফিরছি। দেশের স্বার্থে প্রধান মন্ত্রী যে দায়িত্বই দেন, তা শতভাগ পালনের চেষ্টা করে যাবো।’ নাগরিক সংবর্ধনায় ভবিষ্যত চলার পথে ব্রিটেন প্রবাসীদের সহযোগিতা ও দোয়াও চান ঐসময় ড. মোমেন। 

5106ADD4-F99E-4884-B121-413E14D4F784লন্ডনে ঐ নাগরিক সংবর্ধনার পরই ড. মোমেনকে প্রধানমন্ত্রী গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব দিতে দেশে নিয়ে যাচ্ছেন, এমন আলোচনা জমে উঠে দেশে-বিদেশে। পররাষ্ট্র মন্ত্রীর দায়িত্ব লাভের মাধ্যমে সেই আলোচনাই সত্যে পরিণত হলো।

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *