পহেলা বৈশাখ : ঢাকাসহ বড় শহরগুলোতে কঠোর নিরাপত্তা


Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

সত্যবাণী ডেস্ক: পহেলা বৈশাখ উদযাপন নিয়ে উৎসাহ-উদ্দীপনা যেমন আছে,  তেমনি আছে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠাও। এরইমধ্যে পুলিশের পক্ষ থেকে নাগরিকদের জন্য অন্তত দুই ডজন নিরাপত্তা পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। উন্মুক্ত স্থানগুলোর অনুষ্ঠান ৫টার মধ্যেই শেষ করে ঘরে ফিরে যেতে পরামর্শ দিয়েছি পুলিশ। সবার নিরাপত্তার স্বার্থেই এমন নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে পুলিশের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে। তবে অনেকের মনেই প্রশ্ন, তাহলে কি নিরাপত্তার নামে পহেলা বৈশাখকে বন্দি করে দেওয়া হলো?

পহেলা বৈশাখ উদযাপনের লক্ষ্যে চট্টগ্রাম নগরীর মেহেদীবাগের বাদশা মিয়া সড়কে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থীদের আঁকা দেয়ালচিত্রটি গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে পোড়া মবিল দিয়ে নষ্ট করে দেয় দুর্বৃত্তরা। যে বিষয়টি বাঙালি চেতনার প্রতি চরম আঘাত করে বলে মনে করেন অসাম্প্রদায়িক চেতনার ব্যক্তিরা। এদিকে বরিশালে মঙ্গল শোভাযাত্রা বন্ধ করার জন্য নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামা’তুল মুজাহিদিন বাংলাদেশের (জেএমবি) নামে দেওয়া উড়োচিঠিতে হুমকি দেওয়া হয়েছে। মঙ্গল শোভাযাত্রাকে হিন্দুয়ানি সংস্কৃতি হিসেবে অভিহিত করে এই আয়োজন বন্ধে জেএমবি বোমা হামলার জন্য প্রস্তুত রয়েছে বলেও উড়োচিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইনস্টিটিউটের পরিচালক ও সহযোগী অধ্যাপক শায়লা শারমিন বলেন, ‘দেয়ালচিত্র নষ্ট করে দেওয়ার ঘটনায়  নগরীর চকবাজার থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি।’ তবে পুলিশ এখনও দুর্বৃত্তদের গ্রেফতার করতে পারেনি। চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (চমেক) অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) শাহ মো. আব্দুর রউফ বলেন, ‘দুর্বৃত্তদের গ্রেফতারে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।বরিশালে মঙ্গল শোভাযাত্রা বন্ধে জেএমবি’র হুমকির বিষয়ে বরিশাল মহানগর পুলিশের কমিশনার এসএম রুহুল আমিন বলেন, ‘পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠান বন্ধে হুমকি দিয়ে যে চিঠি দেওয়া হয়েছে, সেটি জেএমবি’র বলে মনে করি না। তারপরও আমরা সার্বিক নিরাপত্তা জোরদার করেছি, যেন বর্ষবরণ অনুষ্ঠান নির্বিঘ্ন ও নিরাপদভাবে শেষ করতে পারেন সংশ্লিষ্টরা।

নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন হরকাতুল জিহাদ বাংলাদেশের (হুজি-বি) শীর্ষ নেতা মুফতি আবদুল হান্নান ও তার দুই সহযোগীর ফাঁসি পরবর্তী পহেলা বৈশাখ উদযাপন নিয়ে এমনিতেই পুলিশ সারাদেশে সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ সদর দফতরের জনসংযোগ কর্মকর্তা কামরুল আহসান। তিনি বলেন, ‘পহেলা বৈশাখের মতো বাঙালির প্রাণের উৎসব যেন কোনোভাবেই বিঘ্নিত না হয়, সে জন্য পুলিশকে সর্বোচ্চ সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে।এদিকে ঢাকা মহানগর পুলিশের পক্ষ থেকে পহেলা বৈশাখ উদযাপনে ২২টি নিরাপত্তা পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এসব পরামর্শের মধ্যে বলা হয়েছে, ইনডোর ও সংরক্ষিত স্থানে কর্তৃপক্ষের অনুমোদন নিয়ে সূর্যাস্তের পরও অনুষ্ঠান করা যাবে।  তবে রমনা পার্ক, সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ও রবীন্দ্র সরোবর এলাকাসহ যেসব উন্মুক্ত স্থানে বৈশাখী সমাবেশ হবে সেসব এলাকা বিকাল ৫টার মধ্যে ত্যাগ করতে হবে।চারুকলা ইনস্টিটিউটের সদসরাসহ কেউই মুখোশ পড়ে মঙ্গল শোভাযাত্রায় অংশ নিতে পারবেন না। হ্যান্ডব্যাগ, অস্ত্র, ছুরি, কাঁচি, পটকা, ব্লেড, নেইল কাটার, দিয়াশলাই ও গ্যাস লাইটসহ সন্দেহজনক কিছু বহন করতে পারবেন না। জুমার দিন হওয়ায় দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত কোনও অনুষ্ঠান না করা এবং বাদ্য বাজনা না বাজানোর জন্যও নিষেধ করা হয়েছে। মোটর সাইকেলে একজন চলাচলসহ বেশ কিছু বিধি-নিষেধ আরোপ করা হয়েছে।

নিরাপত্তার নামে পহেলা বৈশাখকে বন্দি করা হলো কিনা, জানতে চাইলে ঢাকা মহানগর পুলিশের জনসংযোগ শাখার উপ-কমিশনার মাসুদুর রহমান বলেন, ‘জনগণের নিরাপত্তার জন্য পুলিশ যা যা প্রয়োজন, সেই পদক্ষেপ নিয়েছে।’ এ জন্য সাধারণ মানুষের কিছুটা কষ্ট হলেও নিরাপত্তার স্বার্থে পুলিশকে সহযোগিতা করতে অনুরোধ জানান তিনি।

পহেলা বৈশাখে পুলিশের বিধি নিষেধের বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের অঙ্কন ও চিত্রায়ণ বিভাগের অধ্যাপক জামাল উদ্দিন আহমেদ  বলেন, ‘এর ভালো-মন্দ দু’টি দিকই আছে। তবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা যদি মনে করেন, খারাপ কিছু ঘটতে পারে, সেজন্য তারা নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিতেই পারেন।’ সে ক্ষেত্রে এটা মেনে নেওয়াই উচিত বলে মনে করেন তিনি।
নিরাপত্তার কারণে পহেলা বৈশাখ উদযাপন বিঘ্নিত হবে কিনা, জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, ‘এদেশের মানুষ পহেলা বৈশাখ হৃদয়ে ধারণ করে। তারা স্বতঃস্ফূর্তভাবেই এ উৎসব উদযাপন করবে। দেশব্যাপী পর্যাপ্ত নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে পহেলা বৈশাখ পালিত হবে। ঢাকাসহ সারাদেশে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। যেখানে যেমন নিরাপত্তা প্রয়োজন, সেখানেই তেমনটাই নেওয়া হয়েছে।’

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *