লন্ডনে বঙ্গবন্ধু লেকচার: নারীর ক্ষমতায়নে বাংলাদেশ অনুকরণীয় (ভিডিও)


Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট
সত্যবাণী

লন্ডনঃ ইউনিভার্সিটি অফ লন্ডনের দ্যা স্কুল অফ ওরিয়েন্টাল এন্ড আফ্রিকান স্টাডিজ (SOAS) এ অনুষ্ঠিত ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান লেকচার’ এ নারীর ক্ষমতায়নে বাংলাদেশকে অনুকরণীয় হিসেবে তুলে ধরা হয়েছে। 

৭ই মার্চ, বৃহস্পতিবার লন্ডন ভিত্তিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেভেন্থ মার্চ ফাউন্ডেশন ও সোয়াস সাউথ এশিয়া ইন্সটিটিউটের যৌথ উদ্যোগে সোয়াসের উল্ফসন লেকচার থিয়েটারে অনুষ্ঠিত ‘কনটেনটিয়াস এমপাওয়ারমেন্ট?: ওমেন এজ এজেন্ট অফ চেইন্জ ইন বাংলাদেশ’-শীর্ষক এই লেকচারে বলা হয় বিগত দশকজুড়ে বিভিন্ন সেক্টরে ক্রমবর্ধমানহারে নারীর অবস্থান দখলের কারনে বাংলাদেশ তৃতীয় বিশ্বের কাছে অনুকরণীয় হয়ে উঠেছে। 

FC7571E4-B2E6-404A-BF53-283FC5F05768সাসেক্স ইউনিভার্সিটির ইন্সটিটিউট অফ ডেভোলাপমেন্ট স্টাডিজের অধ্যাপক বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত সোহেলা নাজনিনের উপস্থাপন করা এই লেকচারে পরিসংখ্যান দিয়ে তুলে ধরা হয় বাংলাদেশে নারী সমাজের সেকাল ও একাল। বিগত কয়েক দশক ধরেই বাংলাদেশের রাজনৈতিক, সামাজিক ও অর্থনৈতিক অঙ্গনসহ বিভিন্ন সেক্টরে নারীরা তাদের অবস্থান ক্রমবর্ধমান হারে সংহত করছেন, এমন মন্তব্য করে লেকচারে অধ্যাপক নাজনীন বলেন, ‘৯১ সাল থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশে নারীরাই প্রধান মন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত হয়ে আসছেন। বর্তমানে প্রধান মন্ত্রী, স্পীকার, মন্ত্রী, হাই কমিশনারসহ বিভিন্ন উচ্চ পর্যায়েও নেতৃত্ব দিচ্ছেন নারী’। নারীর এই যুগান্তকারী ক্ষমতায়নের বর্ণনায় আজকের অবস্থানে আসতে পূর্ব প্রজন্মের নারীদের সংগ্রামের ইতিহাসও তুলে ধরেন অধ্যাপক নাজনীন তাঁর লেকচারে। এই ইতিহাস বর্ণনা করতে গিয়ে পাওয়ার পয়েন্ট স্লাইডে এসময় তিনি বেগম রোকেয়া, কবি সুফিয়া কামাল, ব্রিটিশ বিরোধী নেত্রী প্রীতিলতা, ইলা মিত্র ও কল্পনা দত্তসহ পূর্ব প্রজন্মের নারী আন্দোলনের আইকন অনেকের ছবি প্রদর্শন করেন। 

CE65998D-21EF-49CA-8626-7FB1C90EA1C9নাজনীন বলেন, নারী আন্দোলনের আইকন এই মহিয়সীরা নারীর অধিকার আদায় আন্দোলনের যে সূচনা করে গিয়েছিলেন, সেটিই এখন বাংলাদেশে চূড়ান্ত সাফল্য ধরতে দৌড়াচ্ছে। সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশে নারীর সামাজিক অবস্থান বর্ণনা করতে গিয়ে বিভিন্ন পরিসংখ্যান তুলে ধরেন অধ্যাপক নাজনীন। এই পরিসংখ্যানে বর্তমান নারী শিক্ষার হার, চাইল্ড ম্যারেজ, শিশু মৃত্যুর হারসহ সবকিছুই তুলে ধরা হয়। শুধু রাষ্ট্রিয় উচ্চ পর্যায়ে নয়, তৃণমূল পর্যায়ের অর্থনৈতিক কর্মকান্ডেও নারীর হাতের ছোয়া বাংলাদেশকে বিশ্বসভায় আরও প্রস্ফুটিত করছে, বঙ্গবন্ধু লেকচারে এমন মন্তব্য করেন প্রফেসার নাজনীন। এ প্রসঙ্গে তিনি বাংলাদেশের বৈদেশিক মুদ্রার অন্যতম বড় যোগানদার গার্মেন্টস শিল্পের নারীকর্মীদের কঠোর পরিশ্রমের কথা উল্লেখ করেন। ব্রাক, গ্রামীন ব্যাংকসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে ক্ষুদ্র ঋন  নিয়ে পারিবারিক ও সামাজিকভাবে নারীরা কিভাবে স্বাবলম্বি হচ্ছেন তাঁর বর্ণনাও দেন নাজনীন। 

ABDDCA12-7FE5-49DC-89EB-EF1C4CDD372Fতবে অধ্যাপক নাজনীনের পরিসংখ্যান সম্বলিত ৪৫ মিনিটের এই লেকচারে উত্তাপিত পরিসংখ্যানগুলো সর্বসাম্প্রতিক নয় বলে এই প্রতিবেদকের কাছে মন্তব্য করেন অনুষ্ঠানের শ্রুতা, সত্যবাণীর উপদেষ্ঠা সম্পাদক, প্রবীন সাংবাদিক আবু মুসা হাসান। তিনি বলেন, নারী অধিকার প্রতিষ্ঠার সংগ্রাম ও ক্ষমতায়নে বাংলাদেশ যে আরও অনেক এগিয়েছে, তার সর্বশেষ পরিসংখ্যান উঠে আসেনি অধ্যাপক নাজনীনের প্রবন্ধে। উদাহরণ দিতে গিয়ে তিনি বলেন, এক দশকে বাংলাদেশের নারীর ক্ষমতায়নসহ আর্থ-সামাজিক খাতে যে অভূতপূর্ব অগ্রগতি সাধিত হয়েছে তার সর্বশেষ পরিসংখ্যান উল্লেখ করলে বর্তমান বাংলাদেশের সঠিক চিত্র পাওয়া যেতো। যেমন, ইউনেস্কো ইন্সিটিউট স্ট্যাটিসটিক্স এর পরিসংখ্যান অনুযায়ী ২০০৭ সালে বাংলাদেশে শিক্ষিতের হার ছিল শতকরা ৪৬ দশমিক ৬৬ ভাগ। ২০১৭ সালে শিক্ষিতের হার বেড়ে দাড়িয়েছে শতকরা ৭২ দশমিক ৭৬ ভাগ। এই একই সময়ের মধ্যে মেয়েদের শিক্ষার হার শতকরা ৪৩দশমিক ৭৪ ভাগ থেকে বেড়ে শতকরা ৬৯ দশমিক ৯০ ভাগে উন্নীত হয়েছে। শুধু তাই নয়, উচ্চিশক্ষার ক্ষেত্রেও মেয়েরা গত ১০ বছরে অনেক এগিয়ে গেছে।

99E73B32-8BC2-481E-9557-5BF7F6163F6Eলেকচার অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রখেন সোয়াসের সাউথ এশিয়া ইন্সটিটিউটের পরিচালক প্রফেসার এডওয়ার্ড সিম্পসন এবং সমাপনি বক্তব্য রাখেন সেভেন্থ মার্চ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান নুরউদ্দিন আহমেদ। অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয় স্টুডেন্টসহ বিভিন্ন সেক্টরের নেতৃস্থানীয় ব্যাক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

এখানে উল্লেখ্য, এবারের লেকচার ছিলো দ্বিতীয় বঙ্গবন্ধু লেকচার। সেভেন্থ মার্চ ফাউন্ডেশন ও সোয়াস, সাউথ এশিয়া ইন্সটিটিউটের যৌথ উদ্যোগে গত বছর থেকে শুরু হয়েছে এই বার্ষিক লেকচার। প্রতি বছর ঐতিহাসিক ৭ই মার্চে বিভিন্ন বিষয়ের উপর অনুষ্ঠিত হবে ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’ শীর্ষক এই লেকচার, এমনটিই সত্যবাণীকে জানান সেভেন্থ মার্চ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান নুরউদ্দিন আহমেদ।

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *