‘স্বাস্থ্যসেবাকে সহজলভ্য করতে আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করতে হবে’


Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

অন্য পত্রিকা ডেস্ক
সত্যবাণী

ঢাকাঃ রাষ্ট্রপতি মো.আবদুল হামিদ স্বাস্থ্যসেবাকে জনগণের জন্য আরও সহজলভ্য ও গ্রহণযোগ্য করতে সংশ্লিষ্ট সবাইকে সততা,নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন।আগামীকাল ১৬ এপ্রিল ‘জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা সপ্তাহ’ উপলক্ষে আজ এক বাণীতে তিনি এ আহ্বান জানান।স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে প্রথমবারের মতো ‘জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা সপ্তাহ’ পালিত হচ্ছে জেনে রাষ্ট্রপতি সন্তোষ প্রকাশ করেন। জনগণের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে আয়োজিত স্বাস্থ্যসেবা সপ্তাহের প্রতিপাদ্য ‘স্বাস্থ্যসেবা অধিকার, শেখ হাসিনার অঙ্গীকার’ যথার্থ হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

তিনি বলেন, জনগণের দোরগোড়ায় স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতে বর্তমান সরকার ব্যাপক উন্নয়ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে। সারাদেশের হাসপাতালগুলোর শয্যাসংখ্যা বৃদ্ধিসহ নিয়োগ দেয়া হয়েছে চিকিৎসক, নার্স ও অন্যান্য সাপোর্টিং স্টাফ। মেডিকেল শিক্ষার প্রসারে নতুন নতুন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হচ্ছে । বর্তমানে সারাদেশে প্রায় সাড়ে আঠারো হাজার কমিউনিটি ক্লিনিক ও ইউনিয়ন স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রের মাধ্যমে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে স্বাস্থ্য, পরিবার কল্যাণ ও পুষ্টিসেবা প্রদান করা হচ্ছে।

রাষ্ট্রপতি বলেন,অবকাঠামো উন্নয়ন, দক্ষ জনশক্তি তৈরি ও নিয়োগ,অত্যাধুনিক চিকিৎসা সরঞ্জামাদি সংগ্রহ ও তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহারের ফলে দেশে চিকিৎসা সেবার মান যথেষ্ট বৃদ্ধি পেয়েছে।ফলশ্রুতিতে মানুষের গড় আয়ু বৃদ্ধি পেয়েছে,কমেছে মা ও শিশু মৃত্যুর হার। স্বাস্থ্যখাতে সাফল্যের এ ধারা অব্যাহত রাখতে তিনি স্বাস্থ্যখাতের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাইকে পেশাগত দায়িত্ববোধ থেকে জনগণকে সেবা প্রদানের আহ্বান জানান।তিনি বলেন,বাংলাদেশকে ২০২১ সালে মধ্য আয়ের ও ২০৪১ সালে উন্নত দেশে রূপান্তরের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।এ লক্ষ্য অর্জনের পাশাপাশি ২০৩০ সালের মধ্যে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে স্বাস্থ্যখাতের উন্নয়নে বিশেষ গুরুত্ব দিতে হবে।সূত্র:একুশে টেলিভিশন

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *