বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় পর্বে বাংলাদেশ


Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

নিউজ ডেস্ক
সত্যবাণী

স্পোর্টস ডেস্কঃ লাওসের বিপক্ষে ফরোয়ার্ডদের ব্যর্থতায় গোল না পেলেও ড্রয়ের স্বস্তি নিয়েই ২০২২ সালের কাতার বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় পর্বে উঠেছে বাংলাদেশ।মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বাছাইয়ের প্রথম রাউন্ডে দুই দলের ফিরতি পর্বের ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র হয়। প্রথম পর্বে লাওসের মাঠে ১-০ ব্যবধানে জিতেছিল বাংলাদেশ।এদিন একাদশে দুটি পরিবর্তন আনেন বাংলাদেশ কোচ।আরিফুর রহমান ও মতিন মিয়ার বদলে জায়গা পান মামুনুল ইসলাম ও প্রথম পর্বে বদলি হিসেবে নেমে গোল করা রবিউল হাসান।ম্যাচটি বাংলাদেশের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ ছিল।দ্বিতীয় পর্বে যেতে হলে কমপক্ষে ১-০ গোলে কিংবা ড্র করলেও হতো।অপরদিকে পয়েন্ট অনুসারে লাওসকে আজ ২-০ কিংবা ২-১ জিততে হতো ।১-০ গোলে জিতলে খেলা অতিরিক্ত সময়ে গড়া তো। কিন্তু লাওসের সে স্বপ্ন পূরণ হয়নি।উল্টো ফরওয়ার্ডদের ব্যর্থতায় গোল করার সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেনি জামাল ভূঁইয়ারা।খেলার অষ্টম মিনিটে জামাল ভূইয়ার ফ্রি-কিকে প্রতিপক্ষের এক খেলোয়াড় হেডের পর বল পোস্ট দিয়ে বেরিয়ে যাওয়ার আগে পা ছোঁয়াতে পারেননি ইয়াসিন খান।সপ্তদশ মিনিটে নাবীব নেওয়াজ জীবন গোলরক্ষক বরাবর শট নেন।

২৫তম মিনিটে ইয়াসিনের দুর্বল ব্যাক পাসে বিপদে পড়তে পারত বাংলাদেশ।দ্রুত ছুটে এসে বিপদমুক্ত করেন রানা।পাল্টা আক্রমণে বিশ্বনাথ ঘোষের লম্বা করে বাড়ানো বল গোলরক্ষকের গায়ে লেগে পেয়ে যান জীবন।কিন্তু তিনিও ঠিকানা খুঁজে পাননি।৩৭তম মিনিটে ভালো একটি সুযোগ নষ্ট হয় বাংলাদেশের।রবিউলের উঁচু করে বাড়ানো বল আগুয়ান গোলরক্ষকের মাথার ওপর দিয়ে জীবনের হেডে জালে জড়ানোর প্রচেষ্টা ক্রসবারের ওপর দিয়ে উড়ে যায়।বিপলু আহমেদের বদলি নামা মোহাম্মদ ইব্রাহিমের ৫৩তম মিনিটের ক্রসে দুর্বল হেডে সুযোগ নষ্ট করেন জীবন।৭৮তম মিনিটে জীবনের ক্রসে আরেক বদলি ফরোয়ার্ড মাহবুবুর রহমান সুফিল গোলমুখ থেকে টোকা দিতে ব্যর্থ হলে হতাশা বাড়ে গ্যালারিতে আসা হাজার দশেক সমর্থকের।সোহেল রানার ক্রসে ৮৮তম মিনিটে লক্ষ্যভ্রষ্ট হেডে হতাশা আরও বাড়ান ইব্রাহিম।তবে শেষের বাঁশি বাজার সঙ্গে সঙ্গে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় রাউন্ডে ওঠা নিশ্চিত হয়ে যায় দলের।দ্বিতীয় পর্বে ৩৪টি দল কয়েকটি গ্রুপে নিজেদের মোকাবেলা করবে।সেখানে ৮টি ম্যাচ খেলতে পারবে বাংলাদেশ।প্রায় এক বছর খেলার মধ্যে থাকবে জামাল ভূঁইয়ারা।সঙ্গে আরও দুই বছর আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতামূলক ফুটবলে খেলার নিশ্চয়তাও মেললো।

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *