ঘুষ নয়, তথ্য পাচারের অভিযোগে এনামুল বাছিরকে বরখাস্ত করা হয়েছে


Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

নিউজ ডেস্ক
সত্যবাণী

ঢাকাঃ ঘুষের কারণে নয়,তথ্য পাচারের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছিরকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সংস্থাটির প্রধান ইকবাল মাহমুদ।

আজ বুধবার দুদক কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে চেয়ারম্যান বলেন,ঘুষের বিষয় নিয়ে মিডিয়ায় ভুলভাবে উপস্থাপন হয়েছে।তথ্য টুইস্ট করা হয়েছে।আমরা তাঁকে (এনামুল বাছির) ঘুষের কারণে বরখাস্ত করিনি।এটা তো প্রমাণের বিষয়।দুদকের অভ্যন্তরীণ তথ্য বাইরে কীভাবে গেল,সেটাই বড় প্রশ্ন।এতে আচরণবিধি লঙ্ঘিত হয়েছে।যদিও এটাও প্রমাণের বিষয়,যোগ করেন চেয়ারম্যান।এরপর দুপুরে দুদক কার্যালয়ে প্রবেশের সময় এ বিষয়ে জানতে চাইলে এনামুল বাছির বলেন,গণমাধ্যম ভুল,মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর তথ্য পরিবেশন করে আমার ক্ষতি করছে,তারা যাচাই-বাছাইয়ের প্রয়োজন মনে করছে না।এনামুল বাছির আরো বলেন, ‘আমার ক্ষতি করে কুশল ও সালাম বিনিময় অপ্রয়োজনীয়।সাংবাদিকদের এড়াতে সাড়ে ১২টায় দুদকে ঢুকলাম।তবুও সাংবাদিকদের কাছ থেকে ছাড় পেলাম না।এদিকে পুলিশের উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) মিজানুর রহমানের কাছ থেকে ঘুষ নেওয়ার বিষয়টি গতকাল (মঙ্গলবার) বানোয়াট বলেছেন দুদক পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছির।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে গতকাল মঙ্গলবার সদ্য সাময়িক বরখাস্তকৃত দুদক পরিচালক ‘সব বানোয়াট’ বলেন।সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে বাছির বলেন, ‘যে অভিযোগ করেছে তাঁকে (ডিআইজি মিজান) প্রমাণ করতে বলুন।একপর্যায়ে সাংবাদিকরা ওই অডিওর বিষয়ে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, ‘এটা বানোয়াট একটা অভিযোগ। আপনারা যত প্রকারের এক্সপার্ট নিয়ে পারেন প্রমাণ করেন। যেভাবে পারেন প্রমাণ করেন। তাঁকে প্রমাণ নিয়ে আসতে বলেন। মিথ্যার কোনো প্রমাণ থাকে না।এক নারীকে জোর করে বিয়ের পর নির্যাতন চালানোর অভিযোগ ওঠায় গত বছরের জানুয়ারিতে ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনারের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয় মিজানকে। এর চার মাস পর তাঁর সম্পদের অনুসন্ধানে নামে দুদক। উপপরিচালক ফরিদউদ্দিন পাটোয়ারীর হাত ঘুরে অনুসন্ধানের দায়িত্ব পান এনামুল বাছির।একপর্যায়ের ডিআইজি মিজান দাবি করেন, ‘তাঁর কাছ থেকে ৪০ লাখ টাকা ঘুষ নিয়েছেন দুদক কর্মকর্তা বাছির। এর পক্ষে তাদের কথোপকথনের কয়েকটি অডিও ক্লিপ প্রকাশ পায়।এ পরিস্থিতিতে সোমবার তদন্ত কমিটি গঠনের পাশাপাশি বাছিরকে সাময়িক বরখাস্ত করে দুদক।

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *