বিজেপির লালবাজার অভিযানে মধ্য কলকাতা রণক্ষেত্র


Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

রক্তিম দাশ
কন্ট্রিবিউটিং এডিটর,সত্যবাণী

কলকাতা থেকেঃ লোকসভা ভোটের ফল ঘোষণার পর থেকেই পশ্চিমবঙ্গে শাসকদল তৃণমূলের সহিংসা নিয়ে বুধবার দুপুরে বিজেপি কলকাতা পুলিশের সদর দফতর লালবাজার অভিযানের ডাক দেয়। এই অভিযানকে কেন্দ্র করে মধ্য কলকাতা হয়ে উঠল রণক্ষেত্র।
এদিন দুপুর ১১টা নাগাদ মধ্য কলকাতার সুবোধ মল্লিক স্কোয়ার থেকে মিছিল করে বিবি গাঙ্গুলি স্ট্রিট হয়ে লালবাজারের দিকে যাচ্ছিলেন বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা। মিছিল আটকানোর জন্য বিবি গাঙ্গুলি স্ট্রিট-সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউ সংযোগস্থলে ব্যারিকেড করেছিল কলকাতা পুলিশ।বিক্ষোভকারী যখন সেই ব্যারিকেডটি ভাঙার চেষ্টা করেন, তখনই উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে টিয়ার গ্যাসের শেল ফাটায় পুলিশ। বিবি গাঙ্গুলি স্ট্রিটে বাধা পেয়ে ফিয়ার্স লেনের দিকে চলে যান বিজেপি কর্মীরা।সেখানেও যথারীতি ব্যারিকেড ভাঙার চেষ্টা করা হয়। ফের বিক্ষোভকারীদের লক্ষ্য করে ফাটানো হয় টিয়ার গ্যাসের শেল।অসুস্থ হয়ে পড়েন রাজু বন্দ্যোপাধ্যায়-সহ বেশ কয়েকজন বিজেপি নেতা।

অন্যদিকে কৈলাস বিজয়বর্গী নেতৃত্বে লালবাজারের দিকে এগিয়ে যায় আর একটি মিছিল।এই মিছিলে ছিলেন সুরিন্দর সিং আলুওয়ালিয়া,অর্জুন সিং সহ নবনির্বাচিত অন্যান্য সাংসদরা।মিছিলটি বউবাজার এবং সেন্ট্রাল  অ্যাভিনিউ ক্রসিং দিয়ে লালবাজারের দিকে যাওয়ার চেষ্টা করে।মিছিল আটকানোর চেষ্টা করতেই শুরু হয় পুলিশের সঙ্গে হাতাহাতি।ইতিমধ্যেই কাঁদানে গ্যাসের সেল ফাটিয়ে ও জলকামান দিয়ে এই মিছিলকে আটকানোর চেষ্টা করে পুলিশ।পুলিশের জল কামানের হাত থেকে রক্ষা পেতে পাল্টা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট ছুড়তে শুাং করে বিজেপি কর্মীরা।মুকুল রায়-সহ গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন বেশ কয়েকজন বিজেপি সমর্থকরা।সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউতে অবস্থান বিক্ষোভ বসে পড়েন মুকুল রায়, কৈলাস বিজয়বর্গীয়-সহ বিজেপি নেতা ও কর্মীরা।বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক রাহুল সিনাহা বলেন,আমরা শান্তিপূর্ণ ভাবেই মিছিল করছিলাম।কিন্তু পুলিশ আমাদের কর্মসূচিতে অন্যায়ভাবে বাধা দিয়েছে।বিজেপিকে ভয় পেয়েই পুলিশ জলকামান ব্যাবহার করেছে।আমাদের অনেক নেতা-কর্মী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *