ক্যাটারার্স এ্যাসোসিয়েশনের (বিসিএ) নতুন কমিটি


Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

প্রেসিডেন্ট: মোস্তফা কামাল ইয়াকুব
সেক্রেটারী: অলি খান
ট্রেজারার: সাইদুর রহমান বিপুল

মতিয়ার চৌধুরী
স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

 
লন্ডনঃ বৃটেনে বাঙ্গালীর ঐতিহ্যের স্মারক বাংলাদেশ ক্যাটারার্স এ্যাসোসিয়েশন (বিসিএ)’র নতুন কমিটি ২০১৭-২০১৯ দায়িত্ব গ্রহন করেছে।  ২১মে দুপুরে ৪০৩ হ্যারো রোডের ক্যাটারার্স ভবনে বিদায়ী কমিটির প্রেসিডেন্ট পাশা খন্দকার ও সেক্রেটারী জেনারেল এম এ মুনিমের নেতৃত্বে নতুন কমিটির কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর করা হয়। নতুন কমিটির প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহন করেছেন  মোস্তফা কামাল ইয়াকুব, সেক্রেটারী জেনারেল অলি খান, চীপ ট্রেজারার সাইদুর রহমান বিপুল, অর্গেনাইজিং সেক্রেটারী মিঠু চৌধুরী ও প্রেস এন্ড পাবলিকেশন সেক্রেটারী  ফরহাদ হোসাইন টিপু। বিসিএ‘র গঠনতন্ত্র মোতাবেক ক্যাটারার্স নেতৃবৃন্দের মধ্যে আলোচনা সাপেক্ষে সকলের মতামতের ভিত্তিতে আর কোন প্রতিদ্বন্ধি প্যানেল না থাকায় সর্বসম্মতি ক্রমে নতুন কমিটিকে ২০১৭-২০১৯ সালের জন্য নির্বাচিত করা হয়। নির্বাচন কমিশনার  মাহমুদ হাসান এমবিই, আজিজুর রহমান চৌধুরী ও কাউন্সিলার আব্দুল আজিজ তকি লিখিত ভাবে নতুন কমিটিকে অনুমোদন দেন।

এখানে উল্লেখ্য যে, পাশা খন্দকারের নেতৃত্বাধীন প্যানেল দীর্ঘ চার বছর দায়িত্ব পালন শেষে ক্যাটারার্স নেতৃবৃন্দ ও বিশিষ্টজনদের উপস্থিতিতে নতুন কমিটির কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর করে।  দায়িত্ব হস্তান্তর কালে বিদায়ী প্রেসিডেন্ট পাশা খন্দকার বলেন, ‘আমাদের পূর্বপুরুষদের শ্রমে ঘামে প্রতিষ্ঠিত এই সংগঠনটিকে এগিয়ে নিতে আমরা সাধ্যানুসারে চেষ্টা করেছি, আমাদের অক্লান্ত পরিশ্রমের ফলে সংগঠনটি আন্তর্জাতিক ভাবে পরিচিতি পেয়েছে। আমার বিশ্বাস নতুন কমিটির সকলেই যোগ্য, তারা এটিকে আরো একধাপ এগিয়ে নিয়ে যাবেন। এতে সব সময় আমার সহযোগীতা অব্যাহ থাকবে’।

বিদায়ী সেক্রেটারী জেনারেল এম এ মোনিম চার বছরের তাদের সফলতার চিত্র তুলে ধরে বলেন, ‘এই সংগঠনের মাধ্যমে ক্যাটারার্সদের অনেক সমস্যার সমাধান করতে পেরেছি’।

নতুন প্রেসিডেন্ট মোস্তফা কামাল ইয়াকুব বলেন ‘আমাদের চলার পথে সকলের সহযোগীতা থাকলে আমরা অবশ্যই এটিকে এগিয়ে নিতে পারব’।

নতুন সেক্রেটারী জেনারেল অলি খান বলেন, ‘বৃটেনে ব্রিটিশ বাংলাদেশীদের প্রতিনিধিত্বকারী এই সংগঠনটিকে এগিয়ে নিতে সর্বশক্তি দিয়ে কাজ করবো, রেষ্টুরেন্টে ষ্টাফ সংকটসহ ক্যাটারার্সদের সমস্যা সমাধানে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পদক্ষেপ গ্রহন করবো’। এতে তিনি সকলের সহযোগীতা কামনা করেন।

নতুন পরিচালনা কমিটিতে অন্যান্য পদে যারা দায়িত্ব পেয়েছেন তারা হলেন, সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট জামাল উদ্দিন মকদ্দুস, মোহাম্মদ ফজল উদ্দিন, মোজাহিদ আলী চৌধুরী, ইনামুল হক চৌধুরী, শাহ আব্দুল মালিক আজাদ, রফিক মিয়া, মোঃ আব্দুল সোলমান জেপি, দরছ আহমদ, মোঃ মইনুল আমিন বুলবুল, মোঃ ইউসুফ সেলিম, আনিছুল হক চৌধুরী, সৈয়দ হাসান আহমদ, টিপু রহমান, মঈনুদ্দিন ও মেহেরুল ইসলাম।

ভাইস প্রেসিডেন্ট আব্দুল হান্নান, শাকুর আলী, শাব্বির আহমদ চৌধুরী, শামীম আহমদ, মাসুদ আহমদ, মানিক মিয়া, আব্দুল লতিফ কাওছার, আব্দুস সোবহান, এম আব্দুল হাকিম আজাদ, আব্দুল মান্নান, আব্দুর রহমান বাবুল, মোঃ কামরুজ্জামান জোয়েল, ফিরুজুল হক, মোহাম্মদ নাজাম উদ্দিন নজরুল, গোলাম রব্বানী আহমদ, আব্দুল হাফিজ ও আব্দুল খালিক চৌধুরী,

সেক্রেটারী জেনারেল অলি খান, ডেপুটি সেক্রেটারী জেনারেল হেলাল মালিক, ঝুনু মিয়া, চীপ ট্রেজারার সাঈদুর রহমান বিপুল, জয়েন্ট ট্রেজারার মোঃ ফাইজুল হক, জিয়া আলী, অর্গেনাইজং সেক্রেটারী মিঠু চৌধুরী, ডেপুটি অর্গেনাইজিং সেক্রেটারী সহিদুল হক চৌধুরী লিটন, দিলওয়ার হোসাইন, মেম্বারশীফ সেক্রেটারী সাইফুল আলম, জয়েন্ট মেম্বারশীফ সেক্রেটারী নাজ ইসলাম, আশরাফ তালুকদার, পাবলিক রিলেশন সেক্রেটারী আমিনুর রশিদ সেলিম জয়েন্ট পাবলিকেশন সেক্রেটারী মোহাম্মদ আনওয়ারুল ইসলাম, হুশায়ুন রশিদ, প্রেস এন্ড পাবলিকেশন সেক্রেটারী ফরহাদ হোসেন টিপু, এ্যাসিসটেন্ট প্রেস এন্ড পাবলিকেশন সেক্রেটারী ছুরুক মিয়া, ট্রেনিং এন্ড এডুকেশন সেক্রেটারী ফজলে রাব্বি চৌধুরী, এ্যাসিটেন্ট মোহাম্মদ আব্দুল কাদির, সোসিয়েল এন্ড ক্যালচারাল সেক্রেটারী মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন, পোর্টস সেক্রেটারী মোহাম্মদ হোসাইন কামালী, এনইসি মেম্বার পাভেজ আহমদ, এম সিরাজুল ইসলাম রোশন আলী মোহাম্মদ বুলবুল, আব্দুল মালেক, আবজল হোসাইন, মোহাম্মদ আব্দাল মিয়া, লুদু মিয়া চৌধুরী, আলতাফ হোসাইন, আনসার মিয়া, আবুল মনসুর জুয়েল, আব্দুল হক, আলাউদ্দিন আব্দুল সুফিয়ান, ওয়াহিদ রহমান বুলু, বাদশা কাদির, আব্দুল মদিতন তারূকদার, আহমেদ আলী, সালিম চৌধুরী, আব্দূল রাজ্জাক, বদরুল উদ্দিন রাজু, জোবায়ের জামান, জাহিদ আলী খোশনু, আব্দুল কাদির, আশরাফ হোসাইন মুকুল, শামসুল এ খান, শাহণি, মোহিবুর রহমান, সালিকুর রহমান, মাসুম আহমদ, গোলাম রব্বানী আহাদ, মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী, মোসলেহ আহমদ, জিয়াউল হক, ফজলুর রহমান, শাহাব উদ্দিন, হোসাইন আহমদ, শিপু মিয়া, মোস্তাইফজুর খন্দকার পায়েল, জাহাঙ্গির হক, সেলু মিয়া, মোহাম্মদ আলতাফুর রহমান শাহীন, সৈয়দ আবুল মনসুর লিলু, গোলাম খান নূরানী, রেহেনা রাজা, ফষসল চৌধুরী, টিপু মিয়া, আতাউর রহমান লায়েক, ইয়ামিন আর এইচ দিদার, আতিকুর রহমান (শেফ), তৌরিছ আলী, আব্দুল হক, মোহাম্মদ গণী, আব্দূল করিম নাজিম, আতিউর রহমান, হেলাল উদ্দিন, মোহাম্মদ সিদ্দিকুর রহমান জয়নাল, ওয়ালিউর রহমান চৌধুরী টিপু, নূরুর রহমান খন্দকার পাশা, এম এ মোনিম, বজলুর রশিদ এমবিই ও এ এসএম আহমেদ বাবলা।

এখানে উল্লেখ্য, ১৯৬০ সালে প্রতিষ্ঠিত এই সংগঠনটি প্রতিষ্টালগ্ন থেকে ব্রিটেনে কারী ইন্ডাষ্টি তথা বাঙ্গালী কমিউনিটির প্রতিনিধিত্ব করে আসছে। বিদায়ী কমিটির নেতৃবৃন্দ নবনির্বাচিত কমিটিকে ফুলদিয়ে বরন করেন, অন্যদিকে নবাগত কমিটির পক্ষ থেকে বিদায়ী নেতৃবৃন্দকে ফুলের তোড়া উপহার দেয়া হয়। এছাড়া বিসিএ‘র এডমিন অফিসার আলী বাবর চৌধুরীকে তার কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ সংগঠনের পক্ষ থেকে ক্রেষ্ট প্রদান করা হয়।

 

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *