বাজেটে কোনও সমস্যা থাকলে সমাধান করা হবে: প্রধানমন্ত্রী


Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

সত্যবাণী ডেস্ক: প্রস্তাবিত বাজেটকে বড় বাজেট উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, চার লাখ ২৬৬ কোটি টাকার বাজেট দেয়া হয়েছে। এই বাজেটে কোনো সমস্যা থাকলে সংসদে আলোচনা করে তার সমাধান করা হবে।

আজ রোববার জাতীয় প্রেস ক্লাবে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে) ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত ইফতার মাহফিলে তিনি একথা বলেন।আওয়ামী লীগের পায়ের নিচে মাটি নেই’ মন্তব্য করে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার দেয়া বক্তব্যের সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ক্ষমতার উচ্চশিখরে আরোহণ করে যে দলের জন্ম হয়, তাদের পায়ের নিচে মাটি থাকে না। ১৯৪৯ সালে আওয়ামী লীগের জন্ম। এদেশের মাটি আর মানুষের ভেতর থেকে আওয়ামী লীগ উঠে এসেছে। আওয়ামী লীগ এদেশের মানুষের মুক্তি এনে দিয়েছে, স্বাধীনতা এনে দিয়েছে।

তিনি বলেন, ‘ক্ষমতায় আরোহণ করে রাজনীতিতে অবতরণ করা বিএনপি মাটি ও মানুষের থেকে জন্ম নেয়নি।’

বিএনপির নেত্রী খালেদা জিয়ার প্রতি ইঙ্গিত করে শেখ হাসিনা বলেন, যারা মানুষ পুড়িয়েছে, মানুষ পোড়াতে হুকুম দিয়েছে, হুকুমদাতাসহ সবার বিচার হবে। খালেদা জিয়া এতিমের টাকা মেরে খাওয়ার মামলা ডিলে করার জন্য ১৪৬ বার আদালত বদল করেছেন। ভয়টা কিসের মামলা ফেইস করার?

শেখ হাসিনা বলেন, জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস ও মাদকের বিরুদ্ধে সরকারের অভিযান অব্যাহত থাকবে। এক্ষেত্রে সাংবাদিকদের সহযোগিতা চাই।

নবম ওয়েজবোর্ডের কার্যক্রম চলছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন এখন আটকে আছে মালিকদের কারণে। মালিকদের প্রতিনিধি দেয়ার কথা, তারা দেননি। তারা প্রতিনিধি দিলে কাজটা শুরু করে দিতে পারি। মালিকরা সদস্য দেবেন, সুপারিশ দেবেন। আমি চাই প্রত্যেক মালিক ওয়েজবোর্ড মেনে চলবেন। ইলেক্ট্রনিক মিডিয়াও ওয়েজবোর্ডে সামিল হওয়া উচিত। এটা না ঘরকা না ঘাটকা।

নীতিহীন রাজনীতি দেশ ও জাতির কল্যাণ করতে পারে না মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বঙ্গবন্ধু বলতেন, রাজনীতি করলে নীতির সাথে করতে হবে, সাংবাদিকতায়ও নীতি থাকতে হবে। নীতিহীন সাংবাদিকতায় দেশ-সমাজ কলুষিত হয়, তাতে দেশ ও জাতির ক্ষতি।আগে সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে সরাসরি গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হতো উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এখন গ্রেফতারের আগে সমন জারি হয়। সরাসরি গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয় না।

তিনি বলেন, সাংবাদিকদের আবাসন সমস্যা সমধানে উত্তরায় প্লট নির্মাণ করা হচ্ছে। সেখানে দীর্ঘমেয়াদি কিস্তি দিয়ে তারা প্লট নিতে পারবেন। আমি গণপূর্তমন্ত্রীকে বলেছি, কিছু প্লট আলাদা করে রেখে দিতে।ডিইউজের সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, বিএফইউজের সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল, মহাসচিব ওমর ফারুক প্রমুখ ডিউইজের সভাপতি শাবান মাহমুদ।

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Email this to someonePrint this page

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *